Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

স্কুল-কলেজ খোলার দাবি

এ দিন সভায় ঐশী কেন্দ্রের নতুন শিক্ষানীতি নিয়ে নানা অভিযোগ করেন।

নিজস্ব সংবাদদাতা
পুরুলিয়া ২৮ ডিসেম্বর ২০২০ ০৩:৫২
এসএফআইয়ের পঞ্চাশ বছর পূর্তিতে পুরুলিয়া শহরে মিছিল। নিজস্ব চিত্র।

এসএফআইয়ের পঞ্চাশ বছর পূর্তিতে পুরুলিয়া শহরে মিছিল। নিজস্ব চিত্র।

কোভিড-সতর্কতা মেনে স্কুল-কলেজ খোলার দাবি তুললেন এসএফআইয়ের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ঐশী ঘোষ। এসএফআইয়ের পঞ্চাশ বছর পূর্তি উপলক্ষে সংগঠনের জেলা কমিটির তরফে রবিবার পুরুলিয়া শহরের ট্যাক্সিস্ট্যান্ডে একটি প্রকাশ্য সভার আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানে যোগ দেন ঐশী। সভার আগে, সকালে হরিপদ সাহিত্য মন্দিরে হয়েছে শহিদ-স্মরণ কর্মসূচি। শহরে মিছিল করেন সংগঠনের নেতা-কর্মীরা। প্রেক্ষাগৃহেও একটি সভা হয়েছে। ১৯৭০ সালে, সংগঠনের প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকে জেলার যাঁরা যুক্ত ছিলেন তাঁদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল সেখানে। উপস্থিত ছিলেন জেলায় এসএফআইয়ের প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক নিখিল মুখোপাধ্যায় ও সিপিএমের জেলা সম্পাদক প্রদীপ রায়।

এ দিন সভায় ঐশী কেন্দ্রের নতুন শিক্ষানীতি নিয়ে নানা অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, ‘‘পঞ্চাশ-ষাট জনের কম পড়ুয়া থাকলে সেই স্কুল বন্ধ করে দেওয়ার কথা বলা হয়েছে নতুন শিক্ষানীতিতে। কোনও গ্রামে যদি একটাই স্কুল থাকে, আর তাতে কম পড়ুয়া হয়, তা হলে কী হবে? শিক্ষা সবার অধিকার। ছাত্রছাত্রীদের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলা হচ্ছে।’’ রাজ্য সরকারের ‘দুয়ারে সরকার’ কর্মসূচি নিয়েও কটাক্ষ করেন ঐশী। তিনি বলেন, ‘‘পুরুলিয়ায় প্রচুর প্ল্যাকার্ড দেখছি, সরকার ঘরে আসছে। লকডাউনে যখন ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনা চালিয়ে নিয়ে যেতে না পারার কথা বারবার উঠে এসেছে, তখন এই সরকার কোথায় ছিল?’’

বিজেপির জেলা যুব মোর্চার সভাপতি নীলোৎপল সিংহ বলেন, ‘‘দেশের বস্তাপচা শিক্ষাব্যবস্থাকে সংস্কার করে নতুন শিক্ষানীতি নিয়ে এসেছেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানে ছাত্রছাত্রীদের স্বার্থের কথাই আগে দেখা হয়েছে। মানুষকে বিভ্রান্ত করতে চাইছেন ঐশীরা।’’ জেলা যুব তৃণমূলের সভাপতি সৌমেন বেলথরিয়া বলেন, ‘‘কোভিড পরিস্থিতিতে মুখ্যমন্ত্রী ছাত্রছাত্রীদের পড়ার জন্য ট্যাব দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন। তাঁর কন্যাশ্রী বিশ্বের মডেল। কিছু বলার আগে সেগুলো মনে রাখা দরকার।’’

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement