×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৯ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

তিন পুরসভায় পদে রদবদল

নিজস্ব প্রতিবেদন
পুরুলিয়া ১১ নভেম্বর ২০২০ ০১:০৬
প্রতীকী চিত্র।

প্রতীকী চিত্র।

দুই জেলার বিভিন্ন পুরসভায় প্রশাসকমণ্ডলীতে পরিবর্তন আনা হল।শামিমদাদ খানের পরিবর্তে পুরুলিয়া পুরসভার নতুন প্রশাসকের দায়িত্ব পেলেন প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদ মৃগাঙ্ক মাহাতো। পুরুলিয়া পুরসভা সূত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার বিকেলে রাজ্য পুর ও নগরোন্নয়ন দফতর থেকে ওই বদলির নির্দেশ এসেছে।

পুরুলিয়া পুরসভার পাঁচ জনের যে পুরপ্রশাসকমণ্ডলী ছিল, তার মধ্যে চার জন সদস্যকে সরিয়ে নতুন চার জনকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। যাঁরা বাদ পড়েছেন, তাঁদের মধ্যে শামিমদাদ ছাড়াও রয়েছেন তৃণমূলেরই তিন কাউন্সিলর মৌসুমি দত্ত, মৌসুমি ঘোষ ও ময়ূরী নন্দী। মৌসুমি ঘোষ বর্তমানে শহর তৃণমূলের সভানেত্রী, ময়ূরী নন্দী পুরসভায় তৃণমূলের দলনেত্রী ছিলেন। যে চার জন এলেন তাঁর মধ্যে এক জন কাউন্সিলর দেবাশিস চট্টোপাধ্যায়। বাকিদের মধ্যে তৃণমূলের শহর তৃণমূলের সহ-সভাপতি কাজল বন্দ্যোপাধ্যায়, যুব তৃণমূল নেতা রানাপ্রতাপ সিংহ ও মৃগাঙ্কবাবু। নতুন বোর্ডেও রয়ে গিয়েছে প্রাক্তন উপপুরপ্রধান বৈদ্যনাথ মণ্ডল।

হঠাৎ এই রদবদলের কারণ নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে। তবে শামিমদাদ খান বলেন, ‘‘এই রদবদলের কারণ জানি না। বিকেলে হঠাৎ ওই ই-মেল পেয়েছি। নতুন বোর্ড গঠন না হওয়া পর্যন্ত দায়িত্ব সামলাব।’’ মৃগাঙ্কবাবু বলেন, ‘‘পুর ও নগরোন্নয়ন দফতর থেকে বিকেলে ফোনে খবর পেয়েছি। শারীরিক অসুস্থতার জন্য বাড়িতে রয়েছি। সুস্থ হলেই দায়িত্ব নেব।’’

Advertisement

বদল হয়েছে ঝালদা পুরসভার প্রশাসকও। ঝালদা পুরসভার প্রশাসক পদে প্রদীপ কর্মকারের বদলে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে প্রাক্তন পুরপ্রধান সুরেশ আগরওয়ালকে। পুরপ্রশাসকমণ্ডলীর বাকি এক সদস্য ও কো-অর্ডিনেটর অপরিবর্তিত রয়েছেন। প্রদীপবাবু বলেন, ‘‘ই-মেল পেয়েছি। সেই অনুযায়ী পরবর্তী পদক্ষেপ করা হবে।’’ সুরেশবাবুর দাবি, ‘‘দল সূত্রে খবর পেলেও আনুষ্ঠানিক ভাবে জানি না।’’পুরপ্রশাসকের পদে পরিবর্তন আনা হয়েছে বাঁকুড়া পুরসভাতেও। পুরবোর্ডের মেয়াদ শেষ হওয়ার পরে বাঁকুড়ার বিদায়ী পুরপ্রধান মহাপ্রসাদ সেনগুপ্তকে পুরসভা পরিচালন কমিটির প্রশাসকের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল।

প্রশাসন সূত্রের খবর, মঙ্গলবার রাজ্য পুর ও নগরোন্নয়ন দফতরের তরফে নির্দেশিকা জারি করে বাঁকুড়া পুরসভার প্রশাসকের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে শহরের ১১ নম্বর ওয়ার্ডের বিদায়ী তৃণমূল কাউন্সিলর অলকা সেন মজুমদারকে। নতুন করে গঠিত পুরসভা পরিচালন কমিটিতেও রাখা হয়নি মহাপ্রসাদবাবুকে। নতুন পুরসভা পরিচালন কমিটিতে অলকাদেবী-সহ রয়েছেন বাঁকুড়ার বিদায়ী উপপুরপ্রধান দিলীপ আগরওয়াল ও জেলা তৃণমূল শিক্ষা সেলের সভাপতি গৌতম দাসকে।

জেলা তৃণমূলের মুখপাত্র দিলীপ আগরওয়াল বলেন, ‘‘তিন জনের পুরসভা প্রশাসকমণ্ডলী গড়া হয়েছে। অলকাদেবীকে প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ করা হয়েছে।’’ অলকাদেবী বলেন, ‘‘আমাকে যে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে, তা যথাযথ পালন করব।’’ মহাপ্রসাদবাবুর সংক্ষিপ্ত প্রতিক্রিয়া, ‘‘নির্দেশ পেয়েছি।’’

Advertisement