Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০১ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

West Bengal Legislative Assembly: স্পিকারকে অসম্মান! ফের সিবিআই-ইডি-কে তলব করতে পারে বিধানসভার স্বাধিকার রক্ষা কমিটি

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৫ নভেম্বর ২০২১ ১৬:১৩
সিবিআই ও ইডি পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা এবং স্পিকার পদের অমর্যাদা করেছে বলে উল্লেখ করেছিলেন স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়।

সিবিআই ও ইডি পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা এবং স্পিকার পদের অমর্যাদা করেছে বলে উল্লেখ করেছিলেন স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়।
প্রতীকী চিত্র

বিধানসভার স্বাধিকার রক্ষা কমিটি ফের তলব করতে পারে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই ও ইডি-কে। বৃহস্পতিবার এই বিষয়ে পদক্ষেপ করতে শুরু করেছে এই কমিটি। স্পিকারকে অসম্মান করার জন্য দুই কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা ইডি-সিবিআইয়ের দুই আধিকারিকের বিরুদ্ধে গৃহীত স্বাধিকার ভঙ্গের প্রস্তাব বুধবার কমিটির কাছে বিবেচনার জন্য আসে। আগামী বৈঠকে ওই দুই সংস্থাকে নোটিস দেওয়া হবে কি না, তা নিয়ে সিদ্ধান্ত হতে পারে। গত অক্টোবর মাসে কেন্দ্রীয় সংস্থা সিবিআই এবং ইডি-র আধিকারিকদের বেশ কয়েক বার ডেকে পাঠিয়েছিলেন স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু স্পিকারের ডাকে সে ভাবে সাড়া দেননি আধিকারিকেরা। সম্প্রতি বিধানসভার অধিবেশন এই বিষয়ে ক্ষোভপ্রকাশ করেছিলেন স্পিকার। কেন্দ্রীয় দুই সংস্থা যে বিধানসভা ও স্পিকার পদের অবমাননা করেছেন, তাও ক্ষোভের সুরে বলেছিলেন তিনি।
ফলস্বরূপ বিধানসভার অধিবেশনের শেষ দিন বরাহনগরের বিধায়ক তথা বিধানসভার উপ মুখ্য সচেতক তাপস রায় এই প্রসঙ্গে একটি প্রস্তাব আনেন। সিবিআই ও ইডি পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা এবং স্পিকার পদের অমর্যাদা করেছে বলে উল্লেখ করেছিলেন তিনি। সেই প্রস্তাবে সায় দিয়ে বিধানসভার মুখ্য সচেতক নির্মল ঘোষ প্রস্তাবটিকে স্বাধিকার রক্ষা কমিটির কাছে পাঠানোর কথা বললে, তা স্বাধিকার রক্ষা কমিটির অধীনে চলে যায়। বুধবার সেই সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে আলোচনা ছিল। আলোচনাপর্ব শেষে জানা গিয়েছে, আগামী সপ্তাহে ওই দুই কেন্দ্রীয় সংস্থাকে বিধানসভার স্বাধিকার রক্ষা কমিটির কাছে হাজিরা দেওয়ার কথা বলা হতে পারে। পাশাপাশি বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ নিয়েও স্বাধিকার রক্ষা কমিটিতে আলোচনা হয়েছে।

Advertisement

সাংবাদিক বৈঠকে স্পিকার বিমানের উদ্দেশে আপত্তিকর শব্দ ব্যবহারের নালিশ জানিয়ে বিরোধী দলনেতার বিরুদ্ধে স্বাধিকার ভঙ্গের অভিযোগ এনেছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। অভিযোগের সত্যাসত্য যাচাইয়ে ভারপ্রাপ্ত বিধানসভার সংশ্লিষ্ট কমিটি বুধবার সেই সাংবাদিক বৈঠকের একাধিক ভিডিও ক্লিপিংস খতিয়ে দেখে। কমিটির একাধিক সদস্যের দাবি, চন্দ্রিমার অভিযোগের পক্ষে প্রাথমিক প্রমাণ মিলেছে। কারণ, বিভিন্ন টিভি, সংবাদমাধ্যমের ক্লিপিংস-এ স্পষ্ট দেখা ও শোনা যাচ্ছে যে, বিরোধী দলনেতা স্পিকারের উদ্দেশে ওই আপত্তিকর শব্দ ব্যবহার করেছেন। সূত্রের খবর, কমিটিতে থাকা বিজেপি সদস্যরা বিষয়টি আরও যাচাই করা দরকার বলে অভিমত দিয়েছেন। আগামী ৮ ডিসেম্বর কমিটির পরবর্তী বৈঠকের দিন ঠিক করা হয়েছে। তার আগে ভিডিও ক্লিপিংস-এর হুবহু ‘টান্সক্রিপশন’ লিখিত আকারে কমিটির সদস্যদের দেওয়া হবে। ওই দিন বিরোধী দলনেতাকে আত্মপক্ষ সমর্থনের জন্য কমিটি সশরীরে হাজিরা দিতে ডাকবে কি না, তা এখনও চূড়ান্ত হয়নি। তবে বিরোধী দলনেতার বক্তব্য শোনার পর চন্দ্রিমাকেও সশরীরে উপস্থিত হওয়ার জন্য ডেকে পাঠাবে কমিটি।

আরও পড়ুন

Advertisement