Advertisement
০৭ অক্টোবর ২০২২
Sunderbans

Sunderban: পুজোর আগে ১ অক্টোবর পর্যটকদের জন্য খুলে যাচ্ছে সুন্দরবন

২০২০-এর মার্চ মাসে করোনা সংক্রমণ শুরু হলে, দেশের সব পর্যটন কেন্দ্রের সঙ্গে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল সুন্দরবন।

পর্যটকদের জন্য খুলে যাবে সুন্দরবন।

পর্যটকদের জন্য খুলে যাবে সুন্দরবন। ফাইল চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১৩:১৪
Share: Save:

ভ্রমণপিপাসু বাঙালিদের জন্য সুখবর।পুজোর আগেই খুলে যাচ্ছে সুন্দরবনের দরজা। সব ঠিকঠাক চললে আগামী ১ অক্টোবর পর্যটকদের জন্য খুলেদেওয়া হবে সুন্দরবনের দরজা। গত সপ্তাহেই পর্যটন দফতর বৈঠক করে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে বন দফতরকেও। ২০২০ সালের মার্চ মাসে করোনা সংক্রমণ শুরু হলে দেশের সব পর্যটন কেন্দ্রের সঙ্গে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল সুন্দরবন। সেই থেকে এত দিন বন্ধই ছিল পশ্চিমবঙ্গের এই জনপ্রিয় পর্যটন কেন্দ্রটি। গত দেড় বছর ধরে সুন্দরবন বন্ধ থাকায় ব্যপক ধাক্কা খেয়েছে সেখানকার পর্যটন শিল্প। তাই এ বছর পুজোর আগেই সুন্দরবনের দরজা পর্যটকদের জন্য খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

পর্যটন দফতরের এক আধিকারিকের কথায়, ‘‘করোনা সংক্রমণের প্রভাব সব জায়গার মতো সুন্দরবনের পর্যটন ব্যবসাতেও পড়েছে। গত বছর পুজো ও শীতের সময় পর্যটন কেন্দ্র খোলা যায়নি। তাতে বিপুল ক্ষতি হয়েছিল। এবার আর সরকার সেই ঝুঁকি নিতে রাজি নয়।’’ দফতর সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, পুরোপুরি বন্ধ থাকায় সুন্দরবনের হোটেল, রিসর্ট, লঞ্চগুলির অবস্থাবেহাল। সঙ্গে সুন্দরবনের স্থানীয় অনুসারী পর্যটন শিল্পও ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। সুন্দরবনের অর্থনীতি নির্ভর করে পর্যটন শিল্পের ওপরেই।

তবে সুন্দরবন খুললেও সজনেখালির জঙ্গল কিন্তু বন্ধই রাখা হবে বলে জানিয়েছেন বনমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। তিনি বলেন, ‘‘পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে সুন্দরবনে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হলেও, সজনেখালির জঙ্গলে কাউকে বেড়াতে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হবে না।’’তা সত্ত্বেও পুজোর ছুটিতে বাঙালি তাঁর ভ্রমণপিপাসা মেটাতে সুন্দরবনে আসবেন বলেই মনে করছে পর্যটন দফতর।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.