Advertisement
০৩ মার্চ ২০২৪
Abhishek Banerjee

‘হকের টাকা ছিনিয়ে আনব, যাত্রা শেষ করেই দিল্লি যাব’, ময়নাগুড়ি থেকে কেন্দ্রকে তোপ অভিষেকের

প্রতিশ্রুতি রাখার প্রসঙ্গে অভিষেক বলেন, “বিজেপি ভাঙা অডিয়ো ক্যাসেট, শুধু শুনতে পাবেন, কিন্তু দেখতে পাবেন না। তৃণমূল হাই কোয়ালিটি ডিভিডি, একই সঙ্গে দেখতেও পাবেন, শুনতেও পাবেন।”

TMC leader Abhishek Banerjee mentioned the date of Delhi visit to protest against centre

ময়নাগুড়ির সভা থেকে কেন্দ্রকে তোপ দাগলেন অভিষেক। ছবি: সংগৃহীত।

নিজস্ব সংবাদদাতা
ময়নাগুড়ি শেষ আপডেট: ২৯ এপ্রিল ২০২৩ ১৭:৪৪
Share: Save:

উত্তরবঙ্গ থেকে আবারও কেন্দ্রীয় ‘বঞ্চনা’র বিরুদ্ধে সরব হলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। শুধু তা-ই নয়, ১০০ দিনের কাজের ‘বকেয়া’ টাকা নিয়ে আসতে দিল্লিতে গিয়ে অবস্থান বিক্ষোভে বসার কথাও বললেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক। শনিবার ময়নাগুড়ির সভা থেকে অভিষেক তাঁর দিল্লিযাত্রার দিনক্ষণও জানিয়ে দিলেন। জানালেন, দলের নবজোয়ার যাত্রা কর্মসূচি শেষ করেই ১ কোটি চিঠি নিয়ে দিল্লি যেতে চান তিনি। বকেয়া টাকা মেটানোর দাবিতে দেখা করতে চান কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়নমন্ত্রী গিরিরাজ সিংহর সঙ্গে।

শিয়রেই পঞ্চায়েত নির্বাচন। সে কথা মাথায় রেখেই রাজ্যের গ্রামীণ অঞ্চলে হওয়া দলীয় সভাগুলি থেকে অভিষেক আবাস যোজনা কিংবা ১০০ দিনের কাজের প্রকল্পে ‘কেন্দ্রের টাকা আটকে রাখা’র বিষয়টি নিয়ে আলাদা করে সরব হন। তাঁর কথায়, “১০০ দিনের কাজে জলপাইগুড়ি জেলার ৭ লক্ষ ৯৮ হাজার মানুষ কাজ করেও টাকা পাননি। কারণ, কেন্দ্র টাকা আটকে দিয়েছে। জেলা থেকে আমাকে অন্তত ৪ লক্ষ চিঠি দিন। আমি গোটা রাজ্য থেকে ১ কোটি চিঠি নিয়ে আপনাদের দাবি জানাতে দিল্লি যাব।” ‘হকের টাকা’ কেন্দ্রীয় সরকারের কাছ থেকে ‘ছিনিয়ে আনতে’ অনির্দিষ্ট কালের জন্য অবস্থানে বসবেন বলেও জানান অভিষেক। এই প্রসঙ্গে তাঁর সংযোজন, “যদি এক কোটি চিঠি নিয়ে দিল্লি পৌঁছই, তবে কোনও মন্ত্রীর ক্ষমতা নেই কানে তুলো গুঁজে, গাড়িতে উঠে বসে থাকবে।”

ধর্মীয় বিভাজনের ফাঁদে পড়ে গত লোকসভা ভোটে এবং আলাদা রাজ্যের দাবিকে সমর্থন জানিয়ে গত বিধানসভায় উত্তরবঙ্গের মানুষ বিজেপিকে ভোট দিয়েছিলেন বলে আরও এক বার দাবি করেন অভিষেক। বিজেপির বিরুদ্ধে ভোট পূর্ববর্তী প্রতিশ্রুতি না রাখার অভিযোগ তুলে অভিষেক বলেন, “বিজেপি হচ্ছে ভাঙা অডিয়ো ক্যাসেট, শুধু শুনতে পাবেন, কিন্তু দেখতে পাবেন না। আর তৃণমূল হচ্ছে হাই কোয়ালিটি ডিভিডি, একই সঙ্গে দেখতেও পাবেন, শুনতেও পাবেন।” অভিষেক জানান, গত নির্বাচনগুলিতে উত্তরবঙ্গ তৃণমূলকে খালি হাতে ফেরালেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার উত্তরবঙ্গের মানুষদের জন্য সমস্ত সরকারি প্রকল্পের সুবিধা পাইয়ে দিয়েছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE