Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

Civic Volunteer: বাইক রাখা নিয়ে বচসা, ডায়মন্ড হারবারে মহিলাকে হেনস্থা, সঙ্গীকে মার সিভিকের

বুধবারের ওই ঘটনা নিয়ে সে রাতেই ডায়মন্ড হারবার থানায় অভিযোগ দায়ের করতে গেলে নানা অজুহাতে বসিয়ে রেখে পুলিশ অভিযোগ নেয়নি বলে অভিযোগ।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০২ ডিসেম্বর ২০২১ ১৭:০৩
রিম্পা চক্রবর্তী  এবং অনীক সাহা।

রিম্পা চক্রবর্তী এবং অনীক সাহা।
নিজস্ব চিত্র।

মোটরবাইক রাখা নিয়ে বচসার জেরে এক মহিলাকে হেনস্থার অভিযোগ উঠল ডায়মন্ড হারবারের কয়েক জন সিভিক ভলান্টিয়ারের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, মারধর করা হয় ওই মহিলার এক আত্মীয়কে।

বুধবারের ওই ঘটনা নিয়ে সে রাতেই ডায়মন্ড হারবার থানায় অভিযোগ দায়ের করতে গেলে নানা অজুহাতে বসিয়ে রেখে পুলিশ অভিযোগ নেয়নি বলে জানিয়েছেন রিম্পা চক্রবর্তী নামে ওই মহিলা। বেহালার বাসিন্দা রিম্পা বৃহস্পতিবার ফের অভিযোগ জানাতে যান থানায়। ডায়মন্ড হারবার থানা জানিয়েছে, এ বিষয়ে কোনও অভিযোগ জমা পড়েনি। অভিযোগ এলে ঘটনার তদন্ত হবে।

রিম্পার দাবি, একটি দোকানের সামনে বাইক রেখে তিনি এক আত্মীয়ার বিয়ের জিনিসপত্র কিনতে ঢুকেছিলেন। অদূরে রাখা বাইকের কাছে ছিলেন তাঁর আত্মীয় অনীক সাহা। হঠাৎই এক জন সিভিক ভলান্টিয়ার চড়াও হন। সেখানে গাড়ি রাখা বেআইনি বলে জানিয়ে অনীককে থানায় নিয়ে যাবেন বলে শাসাতে থাকেন। প্রাথমিক ভাবে বচসা মিটে গেলেও কিছুক্ষণ পরে কয়েক জন সিভিক ভলান্টিয়ার এসে অদূরে দোকানের সামনে অনীককে প্রচণ্ড মারধর করেন।

Advertisement

রিম্পা বলেন, ‘‘দুই মহিলা সিভিক ভলান্টিয়ার আমাকেও হেনস্থা করেন। কেড়ে নেওয়া হয় মোবাইল ফোন।’’ অনীক বলেছেন, ‘‘বোনের বিয়ের বাজারের জন্য আমার পকেটে ১০ হাজার টাকা ছিল। গন্ডগোলের পর হারিয়ে গিয়েছে। আমার ঘড়িটারও খোঁজ পাচ্ছিলাম না। পরে এক জন সিভিক ভলান্টিয়ার ঘড়িটি ফেরত দেন।’’ থানায় অভিযোগ জানাতে গেলে এক মহিলা আধিকারিক দু’-আড়াই ঘণ্টা বসিয়ে রেখেও অভিযোগ নেননি বলে দাবি করেন রিম্পা।

আরও পড়ুন

Advertisement