Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২২ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

Udayan Guha: এ বার কেউ আটকাতে পারবে না, উপনির্বাচনে দিনহাটা ‘পুনর্দখলের’ বার্তা দিলেন উদয়ন

নিজস্ব সংবাদদাতা
কোচবিহার ০৪ অক্টোবর ২০২১ ২২:৫৩
ফের ভোট-ময়দানে উদয়ন গুহ।

ফের ভোট-ময়দানে উদয়ন গুহ।
ফাইল চিত্র।

গুঞ্জন ছিল, ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোরের টিমের পরামর্শ মেনে এ বার দিনহাটায় প্রার্থী বদল করতে পারে তৃণমূল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা হয়নি। ফলে ছ’মাসের ব্যবধানে ফের ভোট-ময়দানে উদয়ন গুহ। নীলবাড়ির লড়াইয়ের পরে এ বার বিধানসভা উপনির্বাচনে।

উদয়নের বাবা কমল গুহ কোচবিহার জেলার একজন বামপন্থী দাপুটে নেতা হিসাবে পরিচিত ছিলেন। কমলের নেতৃত্বে দিনহাটা ছিল ফরওয়ার্ড ব্লকের শক্ত ঘাঁটি। আট বার এই কেন্দ্র থেকে বিধায়ক হয়েছিলেন কমল। উদয়ন তাঁর বাবার হাত ধরে সেই দিনহাটা থেকেই বামপন্থী রাজনীতি শুরু করেছিলেন। পরে যোগ দেন তৃণমূলে।

২০০৬ সালে উদয়ন প্রথম দিনহাটা থেকে ফরওয়ার্ড ব্লকের প্রার্থী হিসেবে ভোট-যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। বামফ্রন্ট রাজ্যে ক্ষমতায় এলেও দিনহাটায় তৃণমূল প্রার্থী অশোক মণ্ডলের কাছে তিনি প্রায় তিন হাজার ভোটে পরাজিত হন। আবার যখন গোটা রাজ্য জুড়ে তৃণমূলের হওয়া চলছিল সেই ২০১১ সালে দিনহাটার ফরওয়ার্ড ব্লক প্রার্থী হিসেবে জোটের তৃণমূল প্রার্থী অমিয় বসাককে হারান উদয়ন। এমনকি, তৃণমূল রাজ্যে ক্ষমতায় আসার পর ২০১৫ সালে ফরওয়ার্ড ব্লকের জেলা সভাপতি থাকাকালীন তিনি তৃণমূলে যোগদান করেন। ২০১৫ সালে পুরসভা নির্বাচনে তৃণমূলের প্রার্থী হিসাবে জয়ী হয়ে তিনি দিনহাটা পুরসভার চেয়ারম্যান হন।

Advertisement



২০১৬ সালের বিধানসভা ভোটে তৃণমূলের পক্ষ থেকে উদয়নকে দিনহাটার প্রার্থী করা হয়। ২০১৬ সালে তিনি ফরওয়ার্ড ব্লক প্রার্থী অক্ষয় ঠাকুরকে প্রায় ১৬ হাজার ভোটে পরাজিত করেন। ২০২১ সালে ফের উদয়নকে প্রার্থী করেন মমতা। কিন্তু নীলবাড়ির লড়াইয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপি প্রার্থী তথা কোচবিহারের সাংসদ নিশীথ প্রামাণিকের কাছে মাত্র ৫৭ ভোটে হেরে যান তিনি।

প্রসঙ্গত দিনহাটার পাশাপাশি কোচবিহার জেলা জুড়েই তৃণমূলের ভরাডুবি হয়। ন’টি বিধানসভা কেন্দ্রের মধ্যে মাত্র দু’টি জোড়াফুল দখল করে। তৃণমূলের পরাজিত প্রার্থীদের মধ্যে ছিলেন রাজ্যের দুই মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ এবং বিনয়কৃষ্ণ বর্মন। জেতার কিছু দিনের মধ্যেই নিশীথ বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দেওয়া। এ বার উপনির্বাচনের মুখে দিনহাটা। উপনির্বাচনে তৃণমূলের টিকিটের জন্য উঠে আসে একাধিক নাম। যদিও সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে ফের তৃণমূলের প্রার্থী হয়েছেন উদয়ন। উদয়ন সোমবার বলেন, ‘‘দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আমার নাম ঘোষণা করবেন, সেই বিশ্বাস ছিল। অনেকে অনেক রকম অপপ্রচার করার চেষ্টা করেছিল। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজের মুখে আমার নাম ঘোষণা করেছেন। দিনহাটার বুকে এ বার আমাদের কেউ আটকাতে পারবে না। তৃণমূল রেকর্ড ভোটে জয়লাভ করবে।’’

অন্যদিকে, পদ্মশিবির এখনও দিনহাটা বিধানসভা কেন্দ্রের প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেনি। তবে উপনির্বাচনে পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নিশীথকে। জল্পনা, প্রাক্তন বিধায়ক অশোক মণ্ডলকে টিকিট দিতে পারে বিজেপি। বিজেপি-র জেলা সভানেত্রী মালতি রাভা রায় বলেন, ‘‘শীঘ্রই কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব প্রার্থীর নাম ঘোষণা করবেন। দিনহাটা কেন্দ্রে গত বিধানসভা নির্বাচনে মানুষ বিজেপি-কে আশীর্বাদ করেছিলেন। এই উপনির্বাচনেও বিজেপি বিপুল ভোটে জয়লাভ করবে।’’

প্রসঙ্গত, রাজ্যের অন্য তিনটি বিধানসভা কেন্দ্রের সঙ্গেই আগামী ৩০শে অক্টোবর দিনহাটার উপনির্বাচন। দিনহাটা-১ ব্লকের ৪টি গ্রাম পঞ্চায়েত , দিনহাটা-২ নম্বর ব্লকের ১২টি গ্রাম পঞ্চায়েত এবং দিনহাটা পুরসভার নিয়ে গঠিত এই বিধানসভা কেন্দ্র। মোট ভোটার ২ লাখ ৯৮ হাজার ৫২।

আরও পড়ুন

Advertisement