Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

ফের বৃষ্টির চোখরাঙানি, পারদ চড়লেও আবার ফিরবে শীতের কামড়

তিনটি ঘূর্ণাবর্ত এবং সেই সঙ্গে নিম্নচাপ অক্ষরেখার প্রভাবে উত্তর থেকে পূর্ব ভারতের বিভিন্ন জায়গায় বৃষ্টি চোখ রাঙাচ্ছে।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ ১৬:৫৬
Save
Something isn't right! Please refresh.
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

Popup Close

বর্ষবরণের রাতে শীতের কামড় অনুভূত হলেও, নতুন বছরের শুরুটা মোটেই ভাল হচ্ছে না। শুরুতে বৃষ্টির চোখরাঙানি তো রয়েইছে, সেই সঙ্গে তাপমাত্রাও কিছুটা বৃদ্ধি পাবে বলে আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূ্ত্রে খবর। আগামী ২ থেকে ৫ জানুয়ারি পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গ এবং পূর্ব সিকিমের বেশ কিছু জায়গায় বৃষ্টি হবে। সিকিমের বিভিন্ন এলাকায় তুষারপাতের সম্ভাবনাও রয়েছে।

তিনটি ঘূর্ণাবর্ত এবং সেই সঙ্গে নিম্নচাপ অক্ষরেখার প্রভাবে উত্তর থেকে পূর্ব ভারতের বিভিন্ন জায়গায় বৃষ্টি চোখ রাঙাচ্ছে। আগামী বৃহস্পতিবার থেকে পশ্চিমবঙ্গ, ওড়িশা, ঝাড়খণ্ড, সিকিম, উত্তরপ্রদেশ, হরিয়ানা, রাজেস্থানের কোনও কোনও জায়গায় বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এ রাজ্য লাগোয়া ওড়িশা এবং সংলগ্ন এলাকায় একটি ঘূর্ণবর্ত সক্রিয় হচ্ছে। একই সঙ্গে হরিয়ানা থেকে উত্তর-পূর্ব রাজস্থান হয়ে ঝাড়খণ্ড-উত্তরপ্রদেশ পর্যন্ত একটি নিম্নচাপ অক্ষরেখাও অবস্থান করছে। তার জেরে পশ্চিমবঙ্গে আগামী বৃহস্পতিবার থেকে রবিবার পর্যন্ত বৃষ্টির সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া বিজ্ঞানীরা।

Advertisement

পশ্চিমবঙ্গের পাশাপাশি সিকিমেও আবহাওয়ার অবনতি হবে। সিকিমের বিভিন্ন এলাকায় বৃষ্টির ভ্রুকুটি রয়েছে। ফলে শীতের মরসুমে জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে দার্জিলিঙ, কালিম্পং, গ্যাংটক-সহ পার্বত্য এলাকায় বৃষ্টি চলবে। কপাল ভাল থাকলে তুষারপাত হতে পারে।

মঙ্গলবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১১.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে ২ ডিগ্রি কম। অন্য দিকে দিনের বেলায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রাও ছিল স্বাভাবিকের থেকে ৩ ডিগ্রি কম। ২২.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দার্জিলিংয়ের পারদ কিছুটা চড়ে ৫ ডিগ্রির ঘরে পৌঁছেছে। পুরুলিয়া, পানাগড়, শ্রীনিকেতনের পারদ ৭ ডিগ্রির ঘরে।

দিল্লির এখনও কনকনে। এ দিন সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৪.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শ্রীনগরের তাপমাত্রা মাইনাস ৩.২ ডিগ্রি। গোটা উত্তর ভারত এখন হাড়কাপানো ঠান্ডায় কাঁপছে। এই পরিস্থিতির মধ্যে উত্তর ভারতের দিকে ও দু’টি ঘূর্ণাবর্ত দানা বাঁধছে। হরিয়ানা এবং উত্তর-পূর্ব রাজস্থানে একটি ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হচ্ছে, অন্য আরেকটি ঘূর্ণাবর্ত অবস্থান করছে উত্তর গুজরাত এবং সংলগ্ন এলাকায়।



Something isn't right! Please refresh.

Advertisement