Advertisement
১৯ জুন ২০২৪
Imran Khan

আয়ত্তের বাইরে পরিস্থিতি, পাক পঞ্জাবে নামল সেনা! ইমরানের দলের সহস্রাধিক সমর্থক গ্রেফতার

লাহোরের শাদমান থানায় হামলা চালিয়েছেন পিটিআই সমর্থকেরা। থানার সদর দরজা ভেঙে পড়েছে। থানা চত্বরেও ভাঙচুর চালানো হয়েছে। জানা গিয়েছে, একটি ট্রাকে করে হামলাকারীরা থানার সামনে হাজির হন।

Image of PTI supporter pelting stone

পেশোয়ারে পুলিশকে লক্ষ্য পাথরবৃষ্টি ইমরানের সমর্থকদের। ছবি: রয়টার্স।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
ইসলামাবাদ শেষ আপডেট: ১০ মে ২০২৩ ১৬:০২
Share: Save:

প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে জ্বলছে পাকিস্তান। পথে নেমে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন ইমরানের সমর্থকেরা। পরিস্থিতি এতটাই উত্তপ্ত যে, পাকিস্তানের পঞ্জাবে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় সেনা নামানো হয়েছে। খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের সরকার চিঠি লিখে সেনা নামানোর আবেদন জানিয়েছে। ইতিমধ্যেই সারা দেশে অশান্তি পাকানোর অভিযোগে এক হাজারেরও বেশি পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) সমর্থককে গ্রেফতার করা হয়েছে। কড়া নিরাপত্তার মধ্যেও লাহোরের একটি থানায় হামলা চালানো হয়।

মঙ্গলবার ইমরানের নাটকীয় গ্রেফতারির পর থেকেই অশান্তি শুরু হয় পাকিস্তানে। ইমরান সমর্থকদের রোষ থেকে মুক্তি পায়নি সেনাও। রাওয়ালপিন্ডিতে সেনার সদর দফতর, লাহোর, করাচি, পেশোয়ারেও সেনার বিভিন্ন ছাউনি এবং কার্যালয়ে হামলা হয়। এর পাশাপাশি, পিটিআই সমর্থকেরা রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন। পরিস্থিতি এতটাই উত্তপ্ত যে পঞ্জাব প্রদেশে সেনা নামানো হয়েছে। পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম ‘ডন’-এ প্রকাশিত প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, পঞ্জাবের অভ্যন্তরীণ মন্ত্রী আইনশৃঙ্খলা রক্ষার স্বার্থে সেনা নামানোর নির্দেশ জারি করেছেন। কোন এলাকায় কত সেনা মোতায়েন করা হবে তা নিয়ে প্রাদেশিক সরকারের সঙ্গে সেনার আলোচনা চলছে।

লাহোরের পরিস্থিতিও অশান্ত। ডন সূত্রে খবর, লাহোরের শাদমান থানায় হামলা চালিয়েছেন পিটিআই সমর্থকেরা। এর ফলে থানার সদর দরজা ভেঙে পড়েছে। থানা চত্বরেও ভাঙচুর চালানো হয়েছে। জানা গিয়েছে, একটি ট্রাকে করে হামলাকারীরা থানার সামনে হাজির হয়। তার পর থেকেই শুরু হয় ইটবৃষ্টি। ইসলামাবাদের কাশ্মীর হাইওয়ে অবরুদ্ধ করে বিক্ষোভ চলছে পিটিআই সমর্থকদের। পুলিশ সূত্রে খবর, দেশ জুড়ে গোলমাল পাকানোর অভিযোগে এখনও পর্যন্ত এক হাজারেরও বেশি পিটিআই সমর্থককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পিটিআইয়ের ভাইস চেয়ারম্যান তথা পাকিস্তানের প্রাক্তন মন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি দাবি করেছেন, তাঁকেও ইসলামাবাদে গ্রেফতার করার চেষ্টা করা হয়েছিল। টুইটারে এক ভিডিয়োবার্তায় শাহকে বলতে শোনা যায়, ‘‘ওরা আসাদ উমর সাহেবকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হলেও আমাকে পারেনি। আমি সেই সময় আদালতের মধ্যে ঢুকে গ্রেফতারি এড়িয়েছি। এখন একটি নিরাপদ জায়গা থেকে এই ভিডিয়োবার্তা রেকর্ড করছি।’’ তিনি ইমরানকে মুক্তি না দেওয়া পর্যন্ত দেশ জু়ড়ে সমর্থকদের কাছে শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ আন্দোলন জারি রাখার আবেদন জানিয়েছেন।

ইসলামাবাদ পুলিশ লাইনসে রাখা হয়েছে ইমরানকে। কুরেশি পিটিআই সমর্থকদের ইসলামাবাদ পুলিশ লাইনসের সামনে প্রতিবাদ করতে জড়ো হওয়ার আবেদন জানিয়েছেন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Imran Khan PTI PAkistan Army
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE