Advertisement
১৮ জুলাই ২০২৪
Anthony Albanese

ভারত সফরে এলেন অস্ট্রেলীয় প্রধানমন্ত্রী

এ দেশে আসার আগেই অ্যালবানেজ় এই সফরকে ‘গুরুত্বপূর্ণ’ বলে চিহ্নিত করে জানিয়েছিলেন, “ভারতে একটি ব্যবসায়িক প্রতিনিধি দল নিয়ে যাচ্ছি এবং এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ দ্বিপাক্ষিক সফর হতে চলেছে।

Anthony Albanese in Sabarmati Ashram

সাবরমতী আশ্রমে অ্যান্টনি অ্যালবানেজ়। বুধবার। পিটিআই

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ০৯ মার্চ ২০২৩ ০৬:৪৫
Share: Save:

চার দিনের ভারত সফরে আজ বিকেলে আমদাবাদের সর্দার বল্লভভাই পটেল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পৌঁছলেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী অ্যান্টনি অ্যালবানেজ়। সাবরমতী আশ্রমে কিছু ক্ষণ সময় কাটিয়ে তিনি পৌঁছন রাজভবনে, অংশ নিলেন রঙের উৎসবে। আগামিকাল সকালে মোতেরা স্টেডিয়ামে কিছু ক্ষণ ভারত-অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেটে ম্যাচ দেখে মুম্বইয়ে বাণিজ্য বৈঠকে যোগ দেবেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী। রাতে নয়াদিল্লি পৌঁছনোর কথা অ্যালবানেজ়ের।

দীর্ঘ ছ’বছর পর অস্ট্রেলিয়ার কোনও প্রধানমন্ত্রীর ভারতে এলেন। এ দেশে আসার আগেই অ্যালবানেজ় এই সফরকে ‘গুরুত্বপূর্ণ’ বলে চিহ্নিত করে জানিয়েছিলেন, “ভারতে একটি ব্যবসায়িক প্রতিনিধি দল নিয়ে যাচ্ছি এবং এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ দ্বিপাক্ষিক সফর হতে চলেছে। সম্পর্কের উন্নতি এবং সহযোগিতার ক্ষেত্র বাড়ানো আমাদের লক্ষ্য। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এর পর কোয়াড শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের জন্য অস্ট্রেলিয়া আসবেন এবং তারপরে আমি জি২০ শীর্ষ বৈঠকে ভারতে যাব।”

বিদেশ মন্ত্রক সূত্রে জানানো হয়েছে, সাম্প্রতিক অস্ট্রেলিয়া-ভারত অর্থনৈতিক সহযোগিতা ও বাণিজ্য চুক্তির মাধ্যমে মুক্ত বাণিজ্য ও বিনিয়োগের সুযোগ এবং ভবিষ্যৎ বিনিয়োগ নিয়ে আলোচনাকরতে অস্ট্রেলিয়ার ব্যবসায়িক প্রতিনিধিদল মুম্বইতে অস্ট্রেলিয়া-ভারত সিইও ফোরামে অংশগ্রহণ করবে। যা বর্তমানে কোভিড এবং যুদ্ধ-পরবর্তী বেহাল অর্থনীতিতে খুবই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠতে চলেছে। অ্যালবানেজ়ের সঙ্গে থাকবেন বাণিজ্য ও পর্যটনমন্ত্রী ডন ফারেল, ঊর্ধ্বতন আধিকারিক এবং ব্যবসায়িক প্রতিনিধিদলের সদস্যরা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Australia India
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE