Advertisement
০৫ মার্চ ২০২৪
new york

Tax the Rich: ধনীদের উপর কর চাপান, ডেমোক্র্যাট সদস্য রাজনীতির উত্তাপ ছড়ালেন র‌্যাম্পে

করোনা পর্বের পর ফ্যাশনের হাল হকিকত কেমন হবে তা নিয়ে জল্পনা ছিলই। রাজনীতি দিয়ে ফ্যাশন র‌্যাম্পে আগুন জ্বাললেন অ্যালেকজান্দ্রিয়া।

নিউ ইয়র্কের কংগ্রেস সদস্যের এই পোশাকেই বিতর্ক।

নিউ ইয়র্কের কংগ্রেস সদস্যের এই পোশাকেই বিতর্ক। টুইটার থেকে নেওয়া।

সংবাদ সংস্থা
নিউ ইয়র্ক শেষ আপডেট: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১২:৩৩
Share: Save:

নিউ ইয়র্কের ফ্যাশন মঞ্চে বিতর্কের আগুন জ্বাললেন ডেমোক্র্যাট কংগ্রেস সদস্য অ্যালেকজান্দ্রিয়া ওকাসিও কোর্টেজ ওরফে এওসি। নেটমাধ্যমে ভাইরাল হওয়া ছবিতে দেখা যাচ্ছে, কংগ্রেস সদস্য এওসি একটি সাদা গাউন পরেছেন। অপূর্ব সেই গাউনের পিছনের অংশে লাল কালিতে বড় বড় হরফে লেখা, ‘ট্যাক্স দ্য রিচ’ বা ধনীদের উপর অতিরিক্ত কর চাপানোর সওয়াল। তারকাখচিত ফ্যাশন মঞ্চে রাজনীতিকের হাত ধরে ‘অপ্রিয়’ প্রসঙ্গ উঠে আসায় তুঙ্গে বিতর্ক।

করোনার কারণে গত বছর বন্ধ ছিল নিউ ইয়র্কের ‘মেট্রোপলিটন মিউজিয়াম অব আর্ট’-এর ‘মেট গালা’। এ বছর সেপ্টেম্বরে আয়োজন হয় ওই অনুষ্ঠানের। করোনা পর্বের পর ফ্যাশনের নয়া পর্যায় কেমন হবে তা নিয়ে জল্পনা ছিলই। কিন্তু প্রকৃতপক্ষে রাজনীতি দিয়েই ফ্যাশন র‌্যাম্পে আগুন জ্বাললেন নিউ ইয়র্কেরই নির্বাচিত কংগ্রেস সদস্য ডেমোক্র্যাট অ্যালেকজান্দ্রিয়া। সাদা চোখ ধাঁধানো গাউনের পিছনে লাল কালিতে বড় বড় হরফে লেখা ‘ট্যাক্স দ্য রিচ’ বা ধনীদের উপর করের বোঝা চাপানোর সওয়াল। যা মুহূর্তে সবচেয়ে বড় আলোচনায় পর্যবসিত হয়।

বছর ৩২ এর কংগ্রেস সদস্য অ্যালেকজান্দ্রিয়া ধনীদের উপর কর চাপানোর ব্যাপারে দীর্ঘদিন ধরেই সরব। বিভিন্ন জায়গায় তিনি এ ভাবেই নিজের বক্তব্যকে তুলে ধরেছেন। কিন্তু ‘মেট গালা’র মত অনুষ্ঠান, যেখানে দুনিয়ার নক্ষত্রদের সমাবেশ, সেখানে এমন পোশাক পরে সবাইকে চমকে দিয়েছেন এওসি।

তাঁর পোশাক নিয়ে অবশ্য দ্বিধাবিভক্ত নেটমাধ্যম। কেউ ফ্যাশন মঞ্চে রাজনৈতিক উপস্থাপনার প্রশংসায় পঞ্চমুখ আবার কেউ এওসি ভণ্ডামি করছেন বলে কটাক্ষ করেছেন। দ্বিতীয় দলে রয়েছেন আমেরিকার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পুত্র। তিনি টুইট করে অ্যালেকজান্দ্রিয়াকে প্রতারক বলে সরাসরি আক্রমণ করেছেন।

সমালোচনাকে অবশ্য পাত্তা দেওয়ার কোনও কারণ দেখছেন না এওসি। তাঁর পাল্টা দাবি, ‘‘বৈষম্যের প্রকোপ যে হারে বাড়ছে, প্রতিটি শ্রেণির মানুষের অবস্থা নিয়ে প্রকাশ্যে আলোচনা করতেই হবে। এ জন্য দরকার সাধারণ সচেতনতা। আমি সেই চেষ্টাই করেছি এবং ভবিষ্যতেও করে যাব।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE