Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৯ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

অস্ত্রোপচারের সময় র‌্যাপ নাচেন এই মহিলা চিকিৎসক!

সংবাদ সংস্থা
০৬ জুন ২০১৮ ১৫:৫৪
ইউ টিউবে নাচের নানা ভিডিও আপলোড করেছেন এই চিকিৎসক।

ইউ টিউবে নাচের নানা ভিডিও আপলোড করেছেন এই চিকিৎসক।

তিনি ক্লিনিক চালান। গান করেন। র‌্যাপও নাচেন। অস্ত্রোপচার করতে করতেই নাচেন। নাচতে নাচতেই ছুড়ি, কাঁচি চালান। সম্প্রতি এমনই একজন মহিলা র‌্যাপ ডান্সার থুড়ি চিকিৎসক পুলিশ কর্তাদের ঘুম কেড়ে নিয়েছেন। তাঁর নামে অভিযোগ ভুরি ভুরি। অভিযোগ করেছেন খোদ রোগীরাই। কে এই চিকিৎসক?

উইনডেল ডেভিস বট নামে এই চিকিৎসকের নিবাস মার্কিন মুলুক। আটলান্টায় নিজের ক্লিনিক চালান উইনডেল। পেশায় তিনি একজন ডার্মাটোলজিস্ট বা কসমেটিক সার্জন। রোগীদের ত্বকের কাঁটাছেড়া করে তাঁদের চেহারায় বদল আনাই কাজ উইনডেলের। সম্প্রতি ক্লিনিকের অফিসিয়াল ইউটিউব পেজে বেশ কয়েকটি ভিডিয়ো আপলোড করেছেন উইনডেল। সেখানে দেখা যাচ্ছে, অস্ত্রোপচার করতে করতেই সহকর্মীদের সঙ্গে নাচ, গান করছেন তিনি। হাতে ধরা রয়েছে সার্জারির ছুড়ি, কাঁচি। কখনও ‘কাট ইট’, আবার কখনও ‘ব্রিক হাউস’ গানের সঙ্গে কণ্ঠ মেলাতে দেখা গিয়েছে তাঁকে।

দেখুন ভিডিয়ো:

Advertisement

এখানেই শেষ নয়, বেশ কয়েকটি ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে রোগী নগ্ন করে শোয়ানো এবং তাঁকে ঘিরে নানা ভঙ্গিমায় নেচে যাচ্ছেন উইনডেল ও তাঁর সহকর্মীরা। কখনও কখনও তো সার্জারির জন্য প্রয়োজনীয় গ্লাভস এবং অ্যাপ্রনও ঠিকঠাক করে পড়েননি উইনডেল। এই সব ভিডিয়ো দেখেই ঘুম উড়ে গিয়েছে রোগীর আত্মীয়দের। নড়ে চড়ে বসেছে পুলিশও। ইতিমধ্যেই প্রায় ১০০ জন মহিলা চিকিৎসায় গাফিলতির মামলা দায়ের করে ফেলেছেন উইনডেলের বিরুদ্ধে।

আরও পড়ুন:

চপ্পল ছুড়ে সিংহের মোকাবিলা! দেখুন ভিডিয়ো

বাংলাদেশ কি সত্যিই মাথা পিছু আয়ে ভারতকে ছাপিয়ে যাবে?

প্রথম অভিযোগ আসে ২০১৬ সালে। বছর চুয়ান্নর ইসিলমা করনেলিয়াস বিয়ের আগে বোটক্স এবং অ্যান্টি এজিং ট্রিটমেন্টের জন্য গিয়েছিলেন উইনডেলের চেম্বারে। অভিযোগ, তাঁকে একপ্রকার জোর করে রাজি করিয়ে লাইপোসাকশনের সার্জারি করে দেন উইনডেল। এবং সার্জারির ক’দিন পরেই হৃদরোগে আক্রান্ত হন ইসিলমা। তবে, ইসিলমার অভিযোগ একপ্রকার উড়িয়েই দিয়েছিলেন উইনডেল। সেই শুরু। তারপর অভিযোগ আসতে শুরু করে আরও নানা জায়গা থেকে। কসমেটিক সার্জারি করতে আসা ডোনা শাহের অভিযোগ ছিল, লাইপোসাকশনের পর তাঁর নানাবিধ শারীরিক সমস্যা দেখা দেয়। একই অভিযোগ করেন মিটজি ম্যাকফারল্যান্ড এবং ক্রিস্টিন ডলিও। তবে, এত কিছুর পরেও নির্বিকার উইনডেল। সব অভিযোগই অস্বীকার করেছেন তিনি।

আরও পড়ুন

Advertisement