×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৪ মার্চ ২০২১ ই-পেপার

ব্যবসায়িক দিক থেকেও কোণঠাসা

সংবাদ সংস্থা     
ওয়াশিংটন ১৩ জানুয়ারি ২০২১ ০৩:২৮
চললেন টেক্সাসে, আমেরিকা-মেক্সিকো সীমান্তে প্রাচীর পরিদর্শনে। মঙ্গলবার হোয়াইট হাউস চত্বরে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। রয়টার্স ।

চললেন টেক্সাসে, আমেরিকা-মেক্সিকো সীমান্তে প্রাচীর পরিদর্শনে। মঙ্গলবার হোয়াইট হাউস চত্বরে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। রয়টার্স ।

এ যেন ঠিক তীরে এসে ডুবল তরী! এত দিন তাঁর ‘ব্যবসায়িক সাম্রাজ্য’-এর সঙ্গে যুক্ত হতে যে সব প্রতিষ্ঠান মুখিয়ে থাকত, হোয়াইট হাউস থেকে বিদায় বেলায় তারাই এ বার এক এক করে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে আমেরিকার বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের থেকে।

ক্যাপিটল হামলা ও তার পরবর্তী প্রেক্ষাপটে আগেই ট্রাম্পের টুইটার অ্যাকাউন্ট বন্ধ হয়েছিল। এ বার তাঁর ‘প্রচারক’ হিসেবে কাজ করা প্রায় ৭০ হাজার অ্যাকাউন্টও এ বার মুছে দিল টুইটার। পাশাপাশি তাবড় তাবড় সহযোগীর ব্যবসায়িক সমর্থনও হারিয়েছে ‘দ্য ট্রাম্প অর্গ্যানাইজ়েশন’।

টুইটারের তরফে এ দিন জানানো হয়েছে, অতি দক্ষিণপন্থী যড়যন্ত্র তত্ত্ব ‘কিউঅ্যানন’ সম্পর্কিত অ্যাকাউন্টগুলিই মূলত মুছে ফেলেছে তারা। সংশ্লিষ্ট ষড়যন্ত্র তত্ত্ব অনুযায়ী, ট্রাম্প একা এমন একটি সাম্রাজ্যের বিরুদ্ধে লড়ছেন যারা আদতে শিশুদের সঙ্গে যৌনাচারে যুক্ত। ওই তত্ত্বের প্রচারকদের দাবি, এই তালিকায় রয়েছে বেশ কয়েকটি তাবড় ডেমোক্র্যাট নেতা, হলিউড অভিনেতা, এবং ভিন‌্‌ দেশের রাষ্ট্রনেতা। ক্যাপিটল হামলার প্রেক্ষিতে ভুয়ো ও হিংসাত্মক তথ্য ছড়ানোর অভিযোগে এই অ্যাকাউন্টগুলি বন্ধ করে দেওয়া হল।

Advertisement

আরও পড়ুন: টিকাকরণ শুরু হলেও হার্ড ইমিউনিটি তৈরি হতে ঢের দেরি, জানাল হু

অন্য দিকে ট্রাম্প সংস্থার সঙ্গ ছাড়ার কথা ঘোষণা করেছে ওয়াল স্ট্রিট এবং সিলিকন ভ্যালির বিভিন্ন নামী সংস্থা। ট্রাম্প সমর্থকদের এক কথায় যে হারে কোণঠাসা হতে হচ্ছে, তা দেখেই কি এ বার বিদায়ী প্রেসিডেন্টের সঙ্গ এড়িয়ে চলতে চাইছে ব্যবসায়িক সংগঠনগুলি? প্রশ্ন অনেকের। যদিও সরাসরি প্রতিক্রিয়া দেয়নি কোনও পক্ষই। তবে ইঙ্গিত তেমনই।কয়েক দশক ধরে ট্রাম্পের সংস্থারপ্রায় সমস্ত লেনদেন সামলানো ডয়েশে ব্যাঙ্কও মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। ব্যাঙ্কটির সদর দফতরের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, ট্রাম্পের সংস্থার সঙ্গে সব সম্পর্ক ছিন্ন করছে তারা। সংস্থাটির কাছে ব্যাঙ্কটির বড় অঙ্কের দেনা রয়েছে বলেও জানান তিনি। একই পদক্ষেপ নিতে চলেছে নিউ ইয়র্কের সিগনেচার ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষও। তাঁরা জানান, ট্রাম্পের দু’টি ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হবে। এক সময়ে ট্রাম্প কন্যা ইভাঙ্কা ব্যাঙ্কটির বোর্ড সদস্য ছিলেন। তাদের ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মে ট্রাম্প অর্গ্যানাইজ়েশনের সমস্ত অনলাইন স্টোর বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে শপিফাই আইএনসি-ও। ফেসবুকের দরজাও অনির্দিষ্ট কাল বন্ধ ট্রাম্পের জন্য। ফলে ব্যবসায়িক দিক থেকে অন্তত ট্রাম্প অথৈ জলে।

আরও পড়ুন:অ্যানাকোন্ডাকে জল থেকে ডাঙায় তুলতে পারবে ব্ল্যাক প্যান্থার?

ট্রাম্প যদিও এ দিন দাবি করেছেন, তাঁর ৬ জানুয়ারির বক্তৃতা ‘একেবারে যথাযথ’ ছিল। অ্যাকাউন্ট বন্ধ করার জন্য সোশ্যাল মিডিয়া সংস্থাগুলিকে কার্যত হুমকি দিয়ে তিনি বলেছেন, তারা ‘চরম ভুল’ করছে।

Advertisement