Advertisement
১৩ এপ্রিল ২০২৪
Donald Trump

জরিমানা দিয়ে ট্রাম্প আপাতত স্বস্তিতেই

সম্পত্তির পরিমাণ বাড়িয়ে বলার জন্য ট্রাম্প এবং তাঁর দুই পুত্রের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছিল। সেই জালিয়াতি মামলায় প্রথমে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে প্রায় ৪৫ কোটি ৪০ লক্ষ ডলার জরিমানা ধার্য করে নিউ ইয়র্কের এক আপিল আদালত।

আমেরিকার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

আমেরিকার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। —ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
নিউ ইয়র্ক শেষ আপডেট: ০৩ এপ্রিল ২০২৪ ০৫:৩৬
Share: Save:

গত সপ্তাহেই আদালতের নির্দেশে কিছুটা স্বস্তি পেয়েছিলেন আমেরিকার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। জালিয়াতি মামলায় ট্রাম্পের জরিমানার পরিমাণ অর্ধেকেরও বেশি কমিয়ে দিয়েছিল নিউ ইয়র্কের এক আপিল আদালত। গত কাল সেই কমে যাওয়া জরিমানা বন্ডের মাধ্যমে জমা দিলেন এ বারের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান পদপ্রার্থী ট্রাম্প। ফলে আপাতত তাঁর সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত হওয়ার হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে।

সম্পত্তির পরিমাণ বাড়িয়ে বলার জন্য ট্রাম্প এবং তাঁর দুই পুত্রের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছিল। সেই জালিয়াতি মামলায় প্রথমে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে প্রায় ৪৫ কোটি ৪০ লক্ষ ডলার জরিমানা ধার্য করে নিউ ইয়র্কের এক আপিল আদালত। কিন্তু বিপুল পরিমাণ সেই জরিমানা প্রাথমিক ভাবে ট্রাম্প জমা দিতেই পারেননি। এর পরেই গুঞ্জন শুরু হয়, তা হলে কি গোটা বিশ্বে ধনকুবের হিসেবে পরিচিত ট্রাম্প পরিবারের সম্পত্তি এ বার বাজেয়াপ্ত করা হবে?

এর মধ্যেই গত সপ্তাহে এই মামলার শুনানিতে কিছুটা আকস্মিক ভাবেই জরিমানার পরিমাণ অর্ধেকেরও বেশি কমিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেয় আদালত। ফলে সেই পরিমাণ কমে দাঁড়ায় ১৭ কোটি ৫০ লক্ষ ডলারে। আদালত ওই জরিমানা জমা দিতে ট্রাম্পকে ১০ দিন সময়ও দেয়। আদালতকে ধন্যবাদ জানিয়ে ট্রাম্প বলেছিলেন, বন্ড বা নগদ অর্থ, যে ভাবেই হোক ১০ দিনের মধ্যে সেই জরিমানা মিটিয়ে দেবেন তিনি। তবে সেই কমে যাওয়া জরিমানাও ট্রাম্প আদৌ দিতে পারবেন কি না, তা নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছিল গত কয়েক দিনে। গত কাল শেষ মুহূর্তে অবশ্য ‘নাইট স্পেশ্যালিটি ইনশিওর‌্যান্স কোম্পানি’ নামে ক্যালিফোর্নিয়ার একটি সংস্থা ট্রাম্পের হয়ে বন্ড জমা দিতে রাজি হয়। আদালতের তরফে প্রকাশিত এক বিবৃতি থেকেই এ খবর জানা গিয়েছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Donald Trump USA
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE