Advertisement
১৮ জুন ২০২৪
Russia

Ukraine: ইউক্রেন সঙ্কট নিয়ে নয়াদিল্লির সঙ্গে আলোচনা শুরু করল ইউরোপীয় ইউনিয়ন

রাশিয়া-ইউক্রেন সীমান্ত উত্তেজনার প্রেক্ষিতে ইতিমধ্যেই উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিশ্বের বহু দেশ। যদিও মস্কোর তরফে বুধবার যুদ্ধের সম্ভাবনা খারিজ করা হয়েছে। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের মুখপাত্র আইগর কোনাশেনকভ জানিয়েছেন, দক্ষিণ ও পশ্চিম প্রদেশের সেনা বাহিনীর সংশ্লিষ্ট মহড়া শেষ হওয়ায় তারা ঘাঁটিতে ফিরে যাচ্ছে।

এখনও উত্তেজনা রয়েছে ইউক্রেন-রাশিয়া সীমান্তে।

এখনও উত্তেজনা রয়েছে ইউক্রেন-রাশিয়া সীমান্তে। ছবি: সংগৃহীত।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২২ ২৩:১০
Share: Save:

ইউক্রেন পরিস্থিতি নিয়ে ভারতের সঙ্গে আলোচনা করল ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)। ইউরোপীয় রাষ্ট্রগোষ্ঠীর তরফে জানানো হয়েছে, ইউক্রেন সীমান্তে রাশিয়ার সেনাবাহিনীর বড় সংখ্যায় মোতায়েন এবং যুদ্ধের মহড়া ঘিরে আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে যে উদ্বেগ তৈরি হয়েছে তার পর্যালোচনা হয়েছে বুধবারের বৈঠকে।

বিদেশ মন্ত্রকের একটি সূত্র জানিয়েছে, ইইউ-র তরফে ইউক্রেন পরিস্থিতি সম্পর্কে কিছু তথ্য এবং ব্যাখ্যা দেওয়া হয়েছে বৈঠকে। ইইউ-র এক আধিকারিক বলেন, ‘‘আমরা ইউক্রেনের পাশে রয়েছি এবং বন্ধু দেশগুলিকে পরিস্থিতির গুরুত্ব এবং পরিণতি সম্পর্কে অবহিত করছি।’’

প্রসঙ্গত, বুধবারই ইউক্রেনে বসবাসকারী ভারতীয়দের সে দেশের সরকারের বার্তায় বলা হয়েছে, আপাতত কিছু দিনের জন্য হলেও তাঁরা যেন দেশে ফিরে যান। তার আগে মঙ্গলবার ইউক্রেনের ভারতীয় দূতাবাস সে দেশে বাসবাসকারী ভারতীয়দের উদ্দেশে দেশে ফেরার নির্দেশিকার জারি করেছিল।

রাশিয়া-ইউক্রেন সীমান্ত উত্তেজনার প্রেক্ষিতে ইতিমধ্যেই উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিশ্বের বহু দেশ। যদিও মস্কোর তরফে বুধবার যুদ্ধের সম্ভাবনা খারিজ করা হয়েছে। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের মুখপাত্র আইগর কোনাশেনকভ জানিয়েছেন, দক্ষিণ ও পশ্চিম প্রদেশের সেনা বাহিনীর সংশ্লিষ্ট মহড়া শেষ হওয়ায় তারা ঘাঁটিতে ফিরে যাচ্ছে। রাশিয়ার এই ঘোষণাকে স্বাগত জানালেও, ন্যাটো জোটের প্রধান জেন্স স্টলটেনবার্গ বলেছেন, ‘‘এই বার্তা কিছুটা হলেও আশার আলো দেখাচ্ছে। তবে বাস্তবে রাশিয়া সেনা না সরানো পর্যন্ত ভরসা করা যায় না।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Russia Ukraine Vladimir Putin
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE