Advertisement
০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Gujarat Assembly Election 2022

গুজরাতের ভোটে বহু প্রার্থী ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত! আপ ‘টেক্কা দিল’ কংগ্রেস, বিজেপিকে

প্রথম দফার ভোটে আপের ৩০ শতাংশ প্রার্থীর বিরুদ্ধে গুরুতর অপরাধে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে। কংগ্রেসের ২০ শতাংশ এবং বিজেপির ১২ শতাংশ প্রার্থী গুরুতর ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত।

গুজরাতের ভোটে সবচেয়ে বেশি ‘দাগি’ প্রার্থী অরবিন্দ কেজরীওয়ালের দলের।

গুজরাতের ভোটে সবচেয়ে বেশি ‘দাগি’ প্রার্থী অরবিন্দ কেজরীওয়ালের দলের। গ্রাফিক: সনৎ সিংহ।

সংবাদ সংস্থা
আমদাবাদ শেষ আপডেট: ২৮ নভেম্বর ২০২২ ২২:৩৭
Share: Save:

বছর আষ্টেক আগের কথা। ২০১৪-র এপ্রিল। লোকসভা ভোটের প্রচারে নরেন্দ্র মোদী প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, ক্ষমতায় এলে গুরুতর ফৌজদারি অপরাধে অভিযুক্ত সাংসদ-বিধায়কদের বিশেষ আদালতে টেনে নিয়ে যাবেন তিনি। দোষীদের জেলে পাঠাবেন ১ বছরের মধ্যে। এ বার মোদীর রাজ্যের বিধানসভা ভোটে দেখা গেল বিজেপির প্রার্থী তালিকাতেই ঠাঁই পেয়েছে ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত একাধিক নেতার নাম।

Advertisement

তবে গুজরাতে বিধানসভা ভোটে ‘দাগি’ নেতাদের প্রার্থী করার ক্ষেত্রে পিছিয়ে নেই কংগ্রেসও। তবে এ ক্ষেত্রে সব দলকে টেক্কা দিয়েছে, ‘নীতির রাজনীতির প্রবক্তা’ অরবিন্দ কেজরীওয়ালের আম আদমি পার্টি (আপ)। ভোট-নজরদারি সংস্থা ‘অ্যাসোসিয়েশন অফ ডেমোক্র্যাটিক রিফর্মস’ (এডিআর)-এর রিপোর্ট বলছে, প্রথম দফার ৮৯টি আসনের ভোটে আপের ৩০ শতাংশ প্রার্থীর বিরুদ্ধে গুরুতর অপরাধে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে। কংগ্রেসের ২০ শতাংশ এবং বিজেপির ১২ শতাংশ প্রার্থী গুরুতর ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত।

এডিআর-এর রিপোর্ট বলছে, দ্বিতীয় দফায় ৯৩টি বিধানসভা কেন্দ্রের ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন মোট ৮৩৩ জন প্রার্থী। তাঁদের মধ্যে আপ এবং কংগ্রেস দু’দলেরই ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত প্রার্থীর সংখ্যা ২৯। অন্য দিকে, বিজেপির অভিযুক্ত প্রার্থীর সংখ্যা ১৮। এর মধ্যে গুরুতর অপরাধমূলক মামলা রয়েছে, আপের ১৭, বিজেপির ১৪ এবং কংগ্রেসের ১০ জন প্রার্থীর বিরুদ্ধে।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.