×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২০ জুন ২০২১ ই-পেপার

এখনই থামছে না যুদ্ধ, গাজায় চলবে বোমাবর্ষণ, সমালোচনার মধ্যেও অনড় নেতানিয়াহু

সংবাদ সংস্থা
জেরুসালেম ১৬ মে ২০২১ ১২:১৩
ইজরায়েলি রকেট হানায় জ্বলছে গাজা।

ইজরায়েলি রকেট হানায় জ্বলছে গাজা।
ছবি: রয়টার্স।

এখনই যুদ্ধ থামার কোনও সম্ভাবনা নেই। বরং গাজার উপর বোমাবর্ষণ চলবেই। সপ্তাহব্যাপী রক্তক্ষয়ী যুদ্ধে ২০০-র কাছাকাছি প্রাণ গেলেও সিদ্ধান্তে অনড় ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু। জানিয়ে দিলেন, হেস্তনেস্ত না হওয়া পর্যন্ত হামাসের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে যাবে ইজরায়েলি সেনা।
গত সোমবার থেকে হামাস ও ইজরায়েলি সেনা পরস্পরকে লক্ষ্য করে ক্ষেপণাস্ত্র এবং বোমাবর্ষণ চালিয়ে যাচ্ছে। তা নিয়ে রাষ্ট্রপুঞ্জ-সহ একাধিক দেশ ইতিমধ্যেই উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। যুদ্ধ থামিয়ে শান্তি ফেরানোর বার্তা দিয়েছে সকলে। কিন্তু নেতানিয়াহুর সাফ বক্তব্য, ‘‘আমারা কোনও অপরাধ করিনি। যারা আমাদের আক্রমণ করে চলেছে, যাবতীয় অপরাধবোধের দায় তাদেরই।’’
গাজায় ইজরায়েলি সেনার হানায় শনিবারই আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা ইউ এস অ্যাসোসিয়েট প্রেস এবং আলজজিরার ১২ তলা ভবন গুঁড়িয়ে গিয়েছে। তাতে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়লেও, নেতানিয়াহু বলেন, ‘‘এখনও অভিযান চলছে। যত দিন প্রয়োজন, তত দিন পর্যন্ত অভিযান চলবে। হামাসের মতো ইচ্ছাকৃত ভাবে সাধারণ নাগরিকদের নিশানা করছি না আমরা। বরং নিরীহ নাগরিকদের এড়িয়ে সন্ত্রাসবাদীদের উপরই সরাসরি আঘাত হানছি।’’
রবিবার ভোর থেকেই নতুন করে গাজায় রকেট এবং বোমাবর্ষণ শুরু করেছে ইজরায়েল। হামাস নেতৃত্বের ঘাঁটিতে হামল চালানো হয়েছে বলে জানিয়েছে তারা। তবে নেতানিয়াহু নিরীহ নাগরিকদের প্রাণ বাঁচানোর কথা বললেও, সপ্তাহব্যাপী যুদ্ধে গাজায় এখনও পর্যন্ত কমপক্ষে ১৪৯ জন নিহত হয়েছেন, যার মধ্যে ৪১ শিশুও রয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ১০ ইজরায়েলি নাগরিকের। আহতও হয়েছেন শত শত মানুষ। রবিবারই এ নিয়ে রাষ্টরপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদে জরুরি বৈঠক ডাকা হয়েছে।

Advertisement
Advertisement