Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

আমাজনের ভাবী শীর্ষ কর্তা অ্যান্ডি জ্যাসি কে? জেনে নিন

এক সাক্ষাৎকারে জ্যাসি বলেছিলেন, বিজনেস স্কুলের ফাইনাল পরীক্ষা দেওয়ার ৩ দিনের মধ্যেই অ্যামাজনে যোগ দিতে হয়েছিল তাঁকে।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১২:৩৯
অ্যান্ডি জ্যাসি।

অ্যান্ডি জ্যাসি।

বছরের শেষে শীর্ষপদ বদল হবে অ্যামাজনের। বর্তমান সিইও জেফ বেজোসের স্থলাভিষিক্ত হবেন অ্যান্ডি জ্যাসি। কে তিনি? অ্যামাজনের ভাবী কর্তা অ্যান্ডি সম্পর্কে অনেক তথ্যই সাধারণের অজানা। অন্তর্জালের তথ্য জানাচ্ছে, জ্যাসি একজন আমেরিকান ব্যবসায়ী। ২০২০-র নভেম্বর পর্যন্ত তাঁর মোট সম্পত্তির মূল্য ছিল ৩৭.৭ কোটি মার্কিন ডলার। ফ্যাশন ডিজাইনার স্ত্রী ও দুই সন্তানকে নিয়ে সিয়াটেলে থাকেন অ্যামাজনের এই ভাবী কর্তা।

১৯৯৭ সালে অ্যামাজনের সঙ্গে জ্যাসির সফর শুরু। কেরিয়ারের শুরুতে বিপণন ব্যবস্থাপক পদে কাজ শুরু করেছিলেন তিনি। তবে দ্রুত সংস্থার প্রযুক্তিগত দিকটির ভার নেন। অ্যামাজন ওয়েব সার্ভিস বিভাগের কাজ নতুন করে সাজে তাঁর হাত ধরেই। তাঁর নেতৃত্বেই অ্যামাজন ওয়েব সার্ভিস এখন ৫০০০ কোটি ডলারের ব্যবসা দেয় প্রতিবছর।

৫৩ বছরের জ্যাসি হার্ভার্ড বিজনেস স্কুলের ছাত্র ছিলেন। অ্যামাজনে আসা হঠাৎ করেই। এক বার এক সাক্ষাৎকারে জ্যাসি বলেছিলেন, ‘‘বিজনেস স্কুলের ফাইনাল পরীক্ষা দেওয়ার ৩ দিনের মধ্যেই অ্যামাজনে যোগ দিতে হয়েছিল। তথনও জানতাম না, আমাকে কী কাজ করতে হবে, কোন পদের দায়িত্ব দেওয়া হবে। ১৯৯৭ সালের মে মাসের এক শুক্রবার পরীক্ষা শেষ হয়েছিল। আর সোমবারই অ্যামাজনে এসেছিলাম। কেন জানি না, অ্যামাজনের তরফে বলে দেওয়া হয়েছিল ওই দিনই কাজে যোগ দিতে হবে।’’

Advertisement

এর প্রায় ৯ বছর পর ২০০৬ সালে অ্যামাজনের ওয়েব সার্ভিস চালু করেন জ্যাসি। ৫৭ জনের দল নিয়ে বদলে দেন অ্যামাজনের প্রযুক্তিগত ধাঁচ। কী ভাবে অ্যামাজন প্রযুক্তি কিনবে, ক্লাউড কম্পিউটিং নিয়েই বা কী ভাবে কাজ করবে, সব কিছু ঢেলে সাজান। ফলও মেলে দ্রুত। অ্যামাজনের ওয়েব সার্ভিস ক্রমশ ব্যবসা বাড়াতে শুরু করে।

জ্যাসি মনে করেন, দীর্ঘমেয়াদি সাফল্য পেতে হলে পুনর্বিন্যাস জরুরি। তাঁর দর্শন, এর জন্য প্রথমে সত্যের গোড়ায় পৌঁছনোও জরুরি। তবে সত্যিটা কী, তা জানতে হলে নিষ্ঠুর হতে হবে।

ব্যাক্তিগত জীবনে একটু মুখচোরা জ্যাসি। কাজের বাইরে প্রচারের আলো থেকে দূরে থাকাই পছন্দ করেন। তবে খেলাধূলার শখ আছে। ২টি আন্তর্জাতিক হকি দলের অংশীদারিত্ব আছে তাঁর। স্বঘোষিত সঙ্গীতপ্রেমীও। আবার সামাজিক বিষয়েও সক্রিয়। সমাজমাধ্যমে কৃষ্ণাঙ্গ মহিলার উপর শ্বেতাঙ্গ পুলিশের অত্যাচারের ঘটনা নিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছেন, সমকামী ও রূপান্তরকামীদের প্রতি বৈষম্য নিয়েও সরব হয়েছেন বহু বার।

১৯৯৭ সালে অ্যামাজনে যোগ দেওয়ার কিছু দিনের মধ্যেই বিয়ে করেন জ্যাসি। স্ত্রী এলেনা রসেল কাপলান পেশায় ফ্যাশন ডিজাইনার। স্ত্রী আর সন্তানদের নিয়ে সিয়াটেলে আড়ম্বরহীন জীবন কাটান জ্যাসি। মঙ্গলবার অ্যামাজন জানিয়েছে, এ বছরের শেষ কোয়ার্টারে অ্যামাজনের শীর্ষপদের দায়িত্ব নেবেন জ্যাসি।

আরও পড়ুন

Advertisement