Advertisement
১৭ জুলাই ২০২৪
Iranian President Ebrahim Raisi

ভেঙে পড়ার আগে চপারে কী হয়েছিল? কী করছিলেন ইরানের প্রেসিডেন্ট? প্রকাশ্যে ‘শেষ’ ভিডিয়ো

কপ্টারটি ওড়ার আধ ঘণ্টা পর যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়। প্রায় ১৬ ঘণ্টা পর একটি পাহাড়ের মাথায় কপ্টারের ভগ্নাবশেষ মেলে।

কপ্টারে বসে রয়েছেন রইসি।

কপ্টারে বসে রয়েছেন রইসি। ছবি: এক্স।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ২০ মে ২০২৪ ১৬:০৮
Share: Save:

মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টা আগে চপারে উঠে কী করেছিলেন ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রইসি, সেই ভিডিয়ো প্রকাশ করল সে দেশের সরকারি সংবাদমাধ্যম। রবিবার চপার দুর্ঘটনায় মারা গিয়েছেন রইসি, ইরানের বিদেশমন্ত্রী এবং আট শীর্ষপদস্থ সরকারি আধিকারিক।

ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে, চপারের জানলা দিয়ে বাইরে তাকিয়ে রয়েছেন রইসি। উল্টোদিকে বসে রয়েছেন বিদেশমন্ত্রী হোসেন আমির-আবদোল্লাহিয়ান। এর পর ক্যামেরাটি প্যান করে চপারের ভিতরের অংশ দেখানো হয়েছে। সেখানে বসে রয়েছেন সরকারি আধিকারিকেরা। অন্য একটি ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে, চপারে ওঠার আগে সরকারি আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করছেন রইসি।

কপ্টারটি ওড়ার আধ ঘণ্টা পর যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়। প্রায় ১৬ ঘণ্টা পর একটি পাহাড়ের মাথায় কপ্টারের ভগ্নাবশেষ মেলে। ইরানের জাতীয় টিভি চ্যানেল জানায়, ‘‘ইরানের পরিচারক আয়াতোল্লাহ ইব্রাহিম রইসি দেশের মানুষের সেবা করতে করতে শহিদ হয়েছেন।’’ চপার ভেঙে পড়াকে ‘দুর্ঘটনা’ বলেই জানিয়েছে সে দেশের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম। এই ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। জানিয়েছেন, ইরানের পাশে রয়েছেন তিনি। ভারত-ইরানের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক মজবুত করার ক্ষেত্রে তাঁর অবদান সারা জীবন মনে রাখা হবে। রইসির কপ্টার যখন নিখোঁজ হয়েছিল, তখন উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন মোদী।

রইসির মৃত্যুর পর প্রশ্ন উঠেছে, সেই আসনে বসবেন কে? ইরানের সংবিধান অনুযায়ী, প্রেসিডেন্টের মৃত্যুর পর অন্তর্বর্তিকালীন ভাবে ওই ভূমিকায় থাকার কথা ভাইস প্রেসিডেন্টের। ইরানের ভাইস প্রেসিডেন্ট মহম্মদ মোখবর সাময়িক ভাবে প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব সামলাবেন বলে মনে করা হচ্ছে। তবে তাঁকেও সাংবিধানিক প্রক্রিয়া মেনে কাজ করতে হবে। ইরানের সংবিধানে বলা হয়েছে, প্রেসিডেন্টের আচমকা মৃত্যু হলে ভাইস প্রেসিডেন্ট সাময়িক ভাবে ওই দায়িত্ব সামলাবেন। তিনি সরকারের তিন সদস্যের কাউন্সিলের এক জন সদস্য হিসাবেই ওই দায়িত্ব পাবেন। কাউন্সিলে ভাইস প্রেসিডেন্ট ছাড়াও রয়েছেন ইরানের পার্লামেন্টের স্পিকার এবং বিচার বিভাগের প্রধান। প্রেসিডেন্টের মৃত্যুর ৫০ দিনের মধ্যে এই কাউন্সিল দেশে নতুন করে নির্বাচনের আয়োজন করবে। তার মাধ্যমেই স্থির হবে, ইরানের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট কে হচ্ছেন।

রবিবার রাতে পূর্ব আজ়হারবাইজানে পাহাড়ে ধাক্কা খেয়ে ভেঙে পড়ে রইসির চপার। খারাপ আবহাওয়া, কুয়াশার কারণেই ইরানি প্রেসিডেন্টের চপার দুর্ঘটনার কবলে পড়ে বলে দাবি সংবাদমাধ্যমে। সকালে উদ্ধার করা হয়েছে ধ্বংসাবশেষ।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Chopper Crash Dead
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE