Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৩ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

এ বার কোপ পড়তে পারে বি-১ ভিসায়

সংবাদ সংস্থা
ওয়াশিংটন ২৩ অক্টোবর ২০২০ ০২:৩৯
প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

এইচ-১বি ভিসার তালিকাভুক্ত বিশেষ দক্ষতার পেশার ক্ষেত্রে অস্থায়ী বিজ়নেস ভিসা বা বি-১ মঞ্জুর করায় রাশ টানতে চাইছে ট্রাম্প প্রশাসন। বুধবার আমেরিকার বিদেশ দফতর যে প্রস্তাব দিয়েছে, তা কার্যকর হলে ভারতীয় কর্মীদের ক্ষেত্রে বড় রকম প্রভাব পড়তে পারে। এইচ-১বি ভিসা দেওয়ার ক্ষেত্রেও কাটছাঁট করার পরিকল্পনা আগেই জানিয়েছে তারা।

এত দিন বহু সংস্থাই তাদের কিছু ‘অন-সাইট’ কাজের জন্য ভারতের মতো দেশ থেকে কর্মীদের অল্প সময়ের বি-১ ভিসা দিয়ে আমেরিকায় পাঠাত। কাজ শেষ হলে ফিরিয়ে আনত। এই ধরনের ভিসার ক্ষেত্রে শর্ত পূরণের জটিলতা এইচ-১বি থেকে অনেক কম, ভিসা ফি-ও কম। বিদেশ দফতরের মতে, এই প্রবণতায় আমেরিকানদের কাজে কোপ পড়ছে। প্রথমত, অনেক কম খরচে সংস্থাগুলো এইচ-১বির ঝক্কি ছাড়াই তাদের কর্মীদের আমেরিকায় পাঠিয়ে কাজ সেরে ফেলছে। দ্বিতীয়ত, বি-১ ভিসায় এইচ-১বি তালিকাভুক্ত কাজ করানো যায় এইচ-১বির হারে বেতন না দিয়েই। ফলে আমেরিকার নাগরিকদের মোটা বেতনে কাজ করানোর বদলে কম মাইনেয় কম খরচের ভিসায় লোক এনে কাজ করানোর রেওয়াজ বেড়েছে। গত বছর ডিসেম্বরে ক্যালিফর্নিয়ার অ্যাটর্নি জেনারেল ৫০০ কর্মীকে বি-১ ভিসায় পাঠানোর অভিযোগের জেরেই ইনফসিসের ঘাড়ে ৮ লক্ষ ডলার ক্ষতিপূরণ চাপিয়েছিলেন। বিদেশ দফতর এ বার এই পথটাই বন্ধ করতে চাইছে। এবং প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের দু’সপ্তাহ আগে এই ঘোষণা করে আমেরিকানদের কর্মসংস্থান নিয়ে আশ্বস্ত করতেও চাইছে বলে মনে করা হচ্ছে। আমেরিকানদের বরাভয় দেওয়ার মতো করে বিদেশ দফতর বলেছে, প্রস্তাবিত পরিবর্তন কার্যকর হলে আমেরিকার মাটিতে বিদেশি শ্রমের উপরে নির্ভরতা কমবে এবং এইচ ভিসা-নীতিকে ডিঙিয়ে বি-১-এর দৌলতে আমেরিকায় নিয়মিত দক্ষ শ্রমের চালান হচ্ছে, এমন ধারণাকেও নির্মূল করা যাবে।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement