Advertisement
১৪ জুন ২০২৪
International News

ভারতের সঙ্গে ভাব করতে চান পাক সেনাপ্রধান

পাকিস্তানের পার্লামেন্টের জনাকয়েক সদস্য জানিয়েছেন, পাক রাজনীতিক আর সরকারকে সম্প্রতি এই পরামর্শ দিয়েছেন সে দেশের সেনাধ্যক্ষ জেনারেল কমর জাভেদ বাজওয়া। তিনি বলেছেন, ভারত সহ প্রতিবেশী দেশগুলির সঙ্গে সম্পর্ককে জোরদার করে তোলার চেষ্টা চালিয়ে যাওয়া উচিত ইসলামাবাদের।

পাকিস্তানের সেনাধ্যক্ষ জেনারেল কমর জাভেদ বাজওয়া। ছবি- সংগৃহীত।

পাকিস্তানের সেনাধ্যক্ষ জেনারেল কমর জাভেদ বাজওয়া। ছবি- সংগৃহীত।

সংবাদ সংস্থা
ইসলামাবাদ শেষ আপডেট: ২১ ডিসেম্বর ২০১৭ ১৮:৪৭
Share: Save:

উপমহাদেশে শান্তি বজায় রাখতে ভারত সহ প্রতিবেশী দেশগুলির সঙ্গে হাত মিলিয়ে চলাই ভালো। এ ব্যাপারে দেশের সরকারি উদ্যোগকে সব রকম ভাবে সমর্থন করবে পাক সেনাবাহিনী।

পাকিস্তানের সেনেটে মঙ্গলবার পাক রাজনীতিক আর সরকারকে এই পরামর্শ দিয়েছেন সে দেশের সেনাধ্যক্ষ জেনারেল কমর জাভেদ বাজওয়া। তিনি বলেছেন, ভারত সহ প্রতিবেশী দেশগুলির সঙ্গে সম্পর্ককে জোরদার করে তোলার চেষ্টা চালিয়ে যাওয়া উচিত ইসলামাবাদের।

তবে সীমান্তে ভারতীয় সেনাবাহিনীর যাবতীয় তৎপরতা যে মূলত পাকিস্তানকে লক্ষ্য করেই, পাক রাজনীতিকদের কাছে সে ব্যাপারে উদ্বেগও প্রকাশ করেছেন সেনাধ্যক্ষ জেনারেল বাজওয়া। ইসলামাবাদের রাজনীতিকদের বলেছেন, পাকিস্তানে হিংসা, সন্ত্রাস আর অস্থিরতা সৃষ্টি করতে গোপনে মদত দিয়ে যাচ্ছে দিল্লি। আর তার জন্য আফগানিস্তানের সরকারি গোয়েন্দা সংস্থা ‘এনডিএস’-এর সঙ্গে ভারতের তরফে গোপনে যোগাযোগ রাখা হচ্ছে। আলাপ, আলোচনার মাধ্যমেই সেটা বন্ধ করার ব্যাপারে উদ্যোগ নিতে হবে ইসলামাবাদকে।

আরও পড়ুন- পাকিস্তান ফেরত সেই গীতার ঘর খুঁজতে টুইট সুষমার​

আরও পড়ুন- চিন মানল, শিক্ষা নিতে হবে ডোকলাম থেকে​

পাকিস্তান বিশেষজ্ঞদের বক্তব্য, এর পরেও ভারত ও পাকিস্তানের সম্পর্ক শীঘ্রই স্বাভাবিক হয়ে ওঠা কিছুটা অসম্ভব। কারণ, প্রতিবেশী দেশটির জন্মলগ্ন থেকেই ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করে তোলার অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়েছে পাক সেনাবাহিনী। এ ব্যাপারে সাম্প্রতিক অতীতেও পাক সেনাবাহিনীর আচার, আচরণে কোনও হেলদোল লক্ষ্য করা যায়নি। তাই পাক সেনাবাহিনীর ‘মতিগতি’র এই পরিবর্তন সত্যিই কতটা আন্তরিক, তা নিয়ে ভারতের সংশয় থাকাটাই বরং স্বাভাবিক।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE