Advertisement
০১ মার্চ ২০২৪
Pakistan Economic Crisis

‘আমরা দেউলিয়া দেশ!’ পাক প্রতিরক্ষামন্ত্রীর ডাক, নাগরিকরা নিজের পায়ে দাঁড়ান

পাকিস্তান মুসলিম লিগ (এন) নেতা খাজা আসিফ জানিয়েছেন, লোকজন নিশ্চয়ই শুনেছেন যে, দেশ দেনার দায়ে ডুবেছে। আর্থিক সঙ্কট চরম হয়েছে। যা শুনেছেন, তা একেবারে ঠিক।

image of bankrupt Pakistan

পাকিস্তানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ঘোষণা করে দিলেন, দেশ এখন ‘দেউলিয়া’। — ফাইল ছবি।

সংবাদ সংস্থা
ইসলামাবাদ শেষ আপডেট: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ১২:০৩
Share: Save:

দেশে এক লিটার দুধের দাম ২৫০ টাকা। এক সময় রোজের খাবারে যা থাকত, সেই মুরগির দামও সাধ্যের বাইরে। এক কেজি মুরগির মাংসের দাম ৭৮০ টাকা। এই পরিস্থিতিতে পাকিস্তানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ঘোষণা করে দিলেন, দেশ এখন ‘দেউলিয়া’। নাগরিকদের নিজের পায়ে দাঁড়ানোর আহ্বান জানালেন তিনি।

সিয়ালকোটে একটি সম্মেলনে পাকিস্তানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী তথা পাকিস্তান মুসলিম লিগ (এন) নেতা খাজা আসিফ জানিয়েছেন, লোকজন নিশ্চয়ই শুনেছেন যে, দেশ দেনার দায়ে ডুবেছে। আর্থিক সঙ্কট চরম হয়েছে। যা শুনেছেন, তা একেবারে ঠিক।

পাকিস্তানে এখন খাবার জল, আটা, ময়দার দামও লাগামছাড়া। সাধারণ মানুষের মাথায় হাত। এই পরিস্থিতিতে আসিফ জানালেন, পাকিস্তান ‘দেউলিয়া’ হওয়ার পথে হাঁটছে এমন নয়, ‘দেউলিয়া’ হয়ে গিয়েছে। তাঁর কথায়, ‘‘আমরা এক দেউলিয়া দেশের বাসিন্দা। লোকজন বলছে পাকিস্তান দেউলিয়া হওয়ার পথে হাঁটছে এবং সেখানে আর্থিক সঙ্কট চরমে। আসলে দেশ দেউলিয়া হয়ে গিয়েছে। এ বার আমাদের নিজের পায়ে দাঁড়াতে হবে।’’

একটি বেসরকারি কলেজের সম্মলনে গিয়ে দেশের এই পরিস্থিতির জন্য আসিফ পূর্বতন ইমরান খান সরকারকেই দুষেছে। তাঁর অভিযোগ, ইমরানের সরকারের আমলেই দেশে ফের সন্ত্রাসবাদের আমদানি হয়েছে। সন্ত্রাসবাদ পাকিস্তানের ‘নিয়তি’ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে এই পরিস্থিতি থেকে ঘুরে দাঁড়ানোর পথ রয়েছে পাকিস্তানেই। তাঁর কথায়, ‘‘আমরা আইএমএফ (আন্তর্জাতিক অর্থ ভান্ডার)-এর সাহায্যের দিকে তাকিয়ে রয়েছি।’’

খাজা আসিফের বক্তব্যের এই ভিডিয়ো এখন ভাইরাল। এই নিয়ে শাহবাজ শরিফ সরকারকে একহাত নিয়েছেন বিরোধী পিটিআই (পাকিস্তান তেহরিক-এ-ইনসাফ) নেতারা। ইমরানের দলের নেতাদের কটাক্ষ, গত ১০ মাসে দেশকে ‘শোচনীয়’ পর্যায়ে নামিয়েছে।

২০১৯ সালে আইএমএফ থেকে ৬০০ কোটি ডলার অনুদান (বেলআউট) নিয়েছিল পাকিস্তান। ২০২২ সালে ভয়াবহ বন্যার পর ১১০ কোটি ডলার অনুদান পেয়েছিল। কিন্তু নভেম্বরে সেই অনুদান দেওয়া বন্ধ করে দেয় আইএমএফ। আঙুল তোলেন পাকিস্তানের অভ্যন্তরীণ রাজনৈতিক চাপান-উতোরের দিকে। রাজস্বের ঘাটতি নিয়েও ক্ষোভপ্রকাশ করেছে আইএমএফ। এখন সে দেশে বৈদেশিক মুদ্রার সঞ্চয় তলানিতে। এই পরিস্থিতিতে পাকিস্তানের মন্ত্রীই সে দেশকে ‘দেউলিয়া’ ঘোষণা করলেন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE