Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

ক্যাম্পাসে প্রেম নিবেদন, যুগলকে বহিষ্কার করল লাহৌর বিশ্ববিদ্যালয়, সমালোচনা নেটমাধ্যমে

ওই যুগলের একটি ভিডিয়ো নেটমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। তাতে এক তরুণীকে হাতে গোলাপের তোড়া নিয়ে হাঁটু গেড়ে বসে এক যুবককে প্রেম নিবেদন করতে দেখা যায়।

সংবাদ সংস্থা
ইসলামাবাদ ১৪ মার্চ ২০২১ ১৭:৪১
বহিষ্কৃত যুগল।

বহিষ্কৃত যুগল।

ক্যাম্পাসের মধ্যে প্রেমের প্রস্তাব এবং আলিঙ্গনের ‘অপরাধে’ দুই পড়ুয়াকে বহিষ্কার করল পাকিস্তানের লাহৌর বিশ্ববিদ্যালয়। ক্যাম্পাসের ত্রিসীমানায় তাঁরা ঘেঁষতে পারবেন না বলে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। গোটা ঘটনায় তীব্র ভর্ৎসনার মুখে পড়েছেন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। নেটমাধ্যমে যেমন সমালোচনা হয়েছে, তেমনই প্রতিবাদ জানিয়েছেন দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টোর কন্যাও। প্রতিবাদ জানিয়েছেন দেশের বিশিষ্ট জনেরাও।

বৃহস্পতিবার লাহৌর বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠরত ওই যুগলের একটি ভিডিয়ো নেটমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। তাতে এক তরুণীকে হাতে গোলাপের তোড়া নিয়ে হাঁটু গেড়ে বসে এক যুবককে প্রেম নিবেদন করতে দেখা যায়। তোড়াটি গ্রহণ করে মেয়েটিকে আলিঙ্গন করেন ওই যুবক। সেই সময় চারপাশে তাঁদের ঘিরে ছিলেন অ0ন্য পড়ুয়ারা। মোবাইলে কেউ গোটা ঘটনা ক্যামেরাবন্দী করছিলেন, তো অনেকে আবার উৎসাহ দিচ্ছেন তাঁদের।

ভিডিয়োটি সামনে আসার পর অল্প সময়ের মধ্যেই নেটমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায় সেটি। ওই যুগলকে শুভেচ্ছা জানান অনেকে। অনেকে আবার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এমন আচরণের সমালোচনা করেন। লাহৌর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের নজরেও বিষয়টি আসে। তাতে শুক্রবারই ওই দুই পড়ুয়াকে ডেকে পাঠায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শৃঙ্খলারক্ষা কমিটি। বলা হয়, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আদর্শ আচরণবিধি লঙ্ঘন করেছেন তাঁরা।

Advertisement


কিন্তু শৃঙ্খলা কমিটির সামনে হাজিরা দিতে ব্যর্থ হন ওই যুগল। তার পরেই দুই পড়ুয়াকে বহিষ্কার করার সিদ্ধান্ত নেন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বিশ্ববিদ্যালয়ের চৌহদ্দি তো বটেই, বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য ক্যাম্পাসেও তাঁদের ঢোকা নিষিদ্ধ করা হয়। তাঁদের এই সিদ্ধান্তের তীব্র সমালোচনা করেছেন বেনজির-কন্যা বখতাওয়ার বি-জারদারি। বিশ্ববিদ্যালয়ের সিদ্ধান্তকে ‘হাস্যকর’ বলে উল্লেখ করেন তিনি। পাক ক্রিকেটার ওয়াসিম আক্রমের স্ত্রী শানিয়েরা টুইটারে লেখেন, ‘যত খুশি নিয়ম চাপাও না কেন, ভালবাসাকে কখনও জীবন থেকে বহিষ্কার করতে পারবে না। আমাদের হৃদয়ে ভালবাসা রয়েছে। এই ভালবাসাই মানুষের পরিচয় এবং এর জন্যই জীবন এত মূল্যবান। ভালবাসা থেকে যা শেখা যায়, কোনও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানেই তত শেখা যায় না’।

আরও পড়ুন

Advertisement