×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৮ মে ২০২১ ই-পেপার

বর্ষসেরা ব্যক্তিত্বের যুদ্ধে ওবামা, ট্রাম্পের থেকে এগিয়ে মোদী

সংবাদ সংস্থা
০৩ ডিসেম্বর ২০১৬ ১৯:০৮

আমেরিকার চেয়ে এগিয়ে ভারত! এক ভারতীয় রাজনীতিকের সৌজন্যে!

যতই হোয়াইট হাউসের ‘তখত’ দখল করুন না কেন, বিশ্বে জনপ্রিয়তার বিচারে ভাবী মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প অনেকটাই পিছিয়ে পড়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর চেয়ে। পিছিয়ে পড়েছেন বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাও।

কম কথা নয়! ‘এক মেরু বিশ্বের তালেবর দেশ’ আমেরিকার দুই শীর্ষ স্তরের রাজনীতিককে জনপ্রিয়তার বিচারে (‘টাইম’ ম্যাগাজিনের পাঠকদের বিচারে) টপকে গেলেন উন্নয়নশীল দেশ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ২০১৬ সালে ‘টাইম’ ম্যাগাজিনের ‘পারসন অফ দ্য ইয়ার’ হওয়ার দৌড়ে। দু’দিন আগে, শুক্রবার পর্যন্ত ভারতের প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে সমর্থনের ঝুলি যতটা ভরেছে, তাতে তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার চেয়ে মোদী এগিয়ে রয়েছেন অন্তত ১৮ শতাংশ ভোটে। তবে বিশ্বের তাবড় তাবড় রাজনীতিকদের সঙ্গে ভালই টক্কর দিচ্ছেন ‘উইকিলিক্‌স’-এর সহ প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান আসাঞ্জ। কিন্তু তাঁরা কেউই মোট ‘ইয়েস’ ভোটের সাত শতাংশের বেশি পাননি। ভোটের ফলাফল ঘোষণা হবে ৭ ডিসেম্বর।

Advertisement

পর্যবেক্ষকরা বলছেন, মোদীর পক্ষে ‘ইয়েস’ ভোটে জোয়ার এসেছে! আর ভাটার টান ওবামা ও ট্রাম্পের জনপ্রিয়তায়। দৌড়ে আরও পিছনে রয়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। চতুর্থ। কোনও পরীক্ষা বা প্রতিযোগিতাতেই যার কোনও পদক বা পুরস্কারপ্রাপ্তির সম্ভাবনা থাকে না।

এই নিয়ে ‘টাইম’ ম্যাগাজিনের ‘পারসন অফ দ্য ইয়ার’ হওয়ার দৌড়ের ‘লাস্ট ল্যাপ’-এ মোদী পৌঁছলেন চার বার। এর আগে ২০১৪ সালে তিনি অবশ্য ‘টাইম’ ম্যাগাজিনের ‘পারসন অফ দ্য ইয়ার’ হয়েছিলেন। তবে গত বছর এই খেতাব পেয়েছিলেন জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মর্কেল।

আরও পড়ুন- মার্কিন কূটনীতি ভেঙে ট্রাম্পের ফোন তাইওয়ানে, তীব্র ক্ষোভ বেজিঙের

Advertisement