Advertisement
২২ মে ২০২৪
Tehrik-i-Taliban

পেশোয়ারে আবার হামলা পাক তালিবানের, জোড়া বিস্ফোরণ সরকারি দফতরে, নিহত পুলিশকর্মী

পাকিস্তান সরকারের সঙ্গে শান্তি আলোচনা ভেস্তে যাওয়ার পরে নভেম্বরে ইসলামাবাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছিল তেহরিক-ই-তালিবান পাকিস্তান (টিটিপি)।

Policeman killed, several injured in twin blasts at tehsil building in Khyber Pakhtunkhwa province of Pakistan

বিস্ফোরণে বিধ্বস্ত সরকারি ভবন। ছবি: টুইটার থেকে নেওয়া।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
পেশোয়ার শেষ আপডেট: ২০ জুলাই ২০২৩ ১৮:২৯
Share: Save:

এ বার পেশোয়ারের সরকারি দফতরে হামলা চালিয়ে শক্তি জানান দিল নিষিদ্ধ তেহরিক-ই-তালিবান পাকিস্তান (টিটিপি)। বৃহস্পতিবার সকালে এই হামলার ঘটনায় খাইবার পাখতুনখোয়া প্রাদেশিক পুলিশের এক কর্মী নিহত হয়েছেন। গুরুতর আহত হয়েছেন চার জন। স্থানীয় সূত্রের খবর, খাইবার পাখতুনখোয়ার রাজধানী শহরের উপকণ্ঠে মহকুমার শাসকের দফতরে দু’টি জোরালো বিস্ফোরণ ঘটায় টিটিপি বাহিনী। গত বুধবারেও পেশোয়ারের হায়তাবাদে পাক আধাসেনা ফ্রন্টিয়ার কোরের কনভয়ে হামলা চালিয়েছিলেন তালিবান যোদ্ধারা।

প্রসঙ্গত, পাকিস্তান সরকারের সঙ্গে শান্তি আলোচনা ভেস্তে যাওয়ার পরে নভেম্বরে ইসলামাবাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছিল টিটিপি। বিদ্রোহী ওই পাশতুন গোষ্ঠীর অভিযোগ ছিল, সংঘর্ষবিরতি ভেঙে পাক সেনা এবং ‘কাউন্টার টেররিজম ডিপার্টমেন্ট’ (সিটিডি)-এর যৌথ বাহিনী অভিযান শুরু করার ফলেই অশান্তি ছড়িয়েছে খাইবার পাখতুনখোয়ায়। আমেরিকায় ড্রোন হামলায় নিহত জঙ্গিনেতা বায়তুল্লা মেহসুদ প্রতিষ্ঠিত এই গোষ্ঠী বরাবরই পাক সরকারের বিরোধী। ২০১৪ সালে পেশোয়ারের একটি স্কুলে আত্মঘাতী হামলা চালিয়ে শতাধিক পড়ুয়াকে খুন করেছিল টিটিপি জঙ্গিরা। তার পর একাধিক অভিযান চালিয়েও তাদের বাগে আনতে পারেনি পাক সেনা।

টিটিপির সঙ্গে আফগান তালিবানের একটি অংশের সুসম্পর্ক রয়েছে। ডিসেম্বরে পাক সেনা সীমান্ত পেরিয়ে টিটিপির ডেরায় অভিযান চালাতে গিয়ে আফগান তালিবান বাহিনীর বাধার মুখে পড়েছিল। সে সময় সংঘর্ষে বেশ কয়েক জন পাক সেনার মৃত্যুও হয়েছিল। চলতি সপ্তাহে পাক সেনাপ্রধান জেনারেল আসিম মুনির কোর কমান্ডারদের বৈঠকে সরাসরি টিটিপি-কে মদত দেওয়ার অভিযোগ তুলেছিলেন আফগান তালিবানের বিরুদ্ধে। তার পরে এ নিয়ে দ্বিতীয় হামলা চালাল টিটিপি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE