Advertisement
১৩ জুলাই ২০২৪
Volodymyr Zelenskyy

মোদী-জ়েলেনস্কি ফোনালাপ, শান্তি ফেরাতে ভারতের উপরেও ভরসা করছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট

ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধে জ়েলেনস্কির দেশকে সমর্থন জানিয়েছে আমেরিকা-সহ বহু পশ্চিমী দেশ। জ়েলেনস্কির আমেরিকা সফরেও আবার সে কথা উল্লেখ করেছেন সে দেশের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

সোমবার টেলিফোনে বার্তালাপের সময় মোদীকে আসন্ন জি২০ সম্মেলনের সভাপতিত্ব নিয়েও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন জ়েলেনস্কি।

সোমবার টেলিফোনে বার্তালাপের সময় মোদীকে আসন্ন জি২০ সম্মেলনের সভাপতিত্ব নিয়েও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন জ়েলেনস্কি। ছবি: সংগৃহীত।

সংবাদ সংস্থা
শেষ আপডেট: ২৬ ডিসেম্বর ২০২২ ২০:৪১
Share: Save:

ইউক্রেনে শান্তি ফেরানোর প্রক্রিয়ার বাস্তবায়নে ভারতের উপরে আস্থা রাখছেন সে দেশের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জ়েলেনস্কি। সোমবার একটি টুইটে এ কথা জানিয়েছেন খোদ ইউক্রেন প্রেসিডেন্ট। ওই টুইটেই তিনি আরও জানিয়েছেন, মোদীর সঙ্গে টেলিফোনে কথা হয়েছে তাঁর। সোমবার এই বার্তালাপের সময় মোদীকে আসন্ন জি২০ সম্মেলনের সভাপতিত্ব নিয়েও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তিনি।

নিজের টুইটে জ়েলেনস্কি লিখেছেন, ‘‘ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে ফোনে কথা হয়েছে। জি২০-র সভাপতিত্বের সাফল্য কামনা করি।’’ সেই সঙ্গে তিনি আরও লিখেছেন, ‘‘এই মঞ্চেই (জি২০) আমি (ইউক্রেনে) শান্তি প্রক্রিয়ার বিষয়ে ঘোষণা করেছিলাম। এবং এখন এর বাস্তবায়নে ভারতের অংশগ্রহণের দিকেই তাকিয়ে রয়েছি। রাষ্ট্রপুঞ্জে (ভারতের) সাহায্য এবং সমর্থনের জন্য ধন্যবাদ জানাই।’’

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধে জ়েলেনস্কির দেশকে সমর্থন জানিয়েছে আমেরিকা-সহ বহু পশ্চিমী দেশ। যুদ্ধের মধ্যে সম্প্রতি জ়েলেনস্কির আমেরিকা সফরেও আবার সে কথা উল্লেখ করেছেন সে দেশের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। দীর্ঘ ১০ মাস পেরিয়ে গেলেও দু’দেশের মধ্যে শান্তি প্রক্রিয়ার বিষয়টি অধরাই থেকে গিয়েছে। যদিও পুতিনের দাবি, যুদ্ধের অবসান করতে চায় রাশিয়া। তবে বাস্তবে তা হয়নি। উল্টে, বড়দিনের আগে ইউক্রেনের বিরুদ্ধে হামলা আরও জোরদার করেছে রাশিয়া।

প্রসঙ্গত, এর আগে গত ১৬ ডিসেম্বর পুতিনের সঙ্গে ফোনে কথা হয়েছিল মোদীর। সংবাদমাধ্যমের দাবি, ওই কথোপকথনে ইউক্রেনে শান্তি ফেরানোর প্রসঙ্গে আলাপআলোচনা এবং কূটনৈতিক মাধ্যমের উপরে জোর দেওয়ার কথা উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE