Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৪ জুলাই ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

Russia-Ukraine War: প্রতিরোধের শেষ দুর্গ ধসে পড়ল, আজভস্টলে ইউক্রেন সেনার আত্মসমর্পণ

গত আড়াই মাসের যুদ্ধে ইউক্রেনে তেমন কব্জা করতে পারেনি মস্কো। একমাত্র মারিয়ুপোল-সহ দক্ষিণ-পূর্ব ইউক্রেনের ডনবাস এলাকা এখন রুশ সেনার দখলে।

সংবাদ সংস্থা
কিভ ১৮ মে ২০২২ ০৫:৫২
Save
Something isn't right! Please refresh.
আত্মসমর্পণকারী ইউক্রেনীয় সেনাদের তল্লাশি করছেন রুশ সেনারা। মারিয়ুপোলে।

আত্মসমর্পণকারী ইউক্রেনীয় সেনাদের তল্লাশি করছেন রুশ সেনারা। মারিয়ুপোলে।
ছবি: রয়টার্স

Popup Close

রাশিয়ার দখলে থাকা ইউক্রেনের মারিয়ুপোলে ইউক্রেন সেনাবাহিনীর প্রতিরোধের শেষ দুর্গ ধসে পড়ল। ইউক্রেন সেনার তরফে জানানো হয়েছে, সোমবার আজ়ভস্টল স্টিল প্লান্টে আটকে থাকা ২৫৬ জন সেনা অস্ত্র সমর্পণ করেছে। যার মধ্যে ৫৩ জন গুরুতর জখম। এই ঘটনাকে বড়সড় জয় বলে মনে করছে রাশিয়া।

ইউক্রেন সেনার তরফে প্রকাশ করা একটি ভিডিয়োয় বাসে বসে থাকা আত্মসমর্পণকারী সৈনিকদের দেখা গিয়েছে। স্ট্রেচারে শুয়ে থাকা জখম সেনাদেরও দেখা গিয়েছে তাতে। হুইল চেয়ারে বসা এক জওয়ানের মাথায় ব্যান্ডেজের মোটা পট্টি। যুদ্ধবিধ্বস্ত, ক্লান্ত ইউক্রেনীয় সেনার সেই সব ছবি ভাইরাল হয়েছে মুহূর্তে।

ইউক্রেনের উপ-প্রতিরক্ষামন্ত্রী হানা মালিয়ার আজ এক বিবৃতিতে বলেন, ইউক্রেনের সঙ্গে পূর্বচুক্তি অনুসারে আত্মসমর্পণকারী জওয়ানদের যুদ্ধবন্দি হিসাবে নিয়ে যাওয়া হবে রাশিয়া-নিয়ন্ত্রিত এলাকায়। চিকিৎসার জন্যে জখমদের নিয়ে যাওয়া হবে নোভোয়াজ়োভস্কে। বাকিদের রাখা হবে ওলেনিভকা গ্রামে। যুদ্ধবন্দি বিনিময়ের মাধ্যমে তাঁদের নিরাপদে ফিরিয়ে আনার পরিকল্পনা রয়েছে ইউক্রেনের।

Advertisement

গত আড়াই মাসের যুদ্ধে ইউক্রেনে তেমন কব্জা করতে পারেনি মস্কো। একমাত্র মারিয়ুপোল-সহ দক্ষিণ-পূর্ব ইউক্রেনের ডনবাস এলাকা এখন রুশ সেনার দখলে। লাগাতার রুশ হামলায় প্রায় ধ্বংসস্তূপ হয়ে যাওয়া মারিয়ুপোলের আজ়ভস্টল স্টিল প্লান্ট চত্বরে একমাত্র টিমটিম করে জ্বলছিল ইউক্রেনের প্রতিরোধের শেষ বাতি। শুধু সেনা নয়, এই কারখানা চত্বরে আশ্রয় নিয়েছিলেন বহু সাধারণ নাগরিক। কিন্তু চারদিক থেকে ঘিরে ফেলা রুশবাহিনীর ব্যূহ ভেদ করা অসম্ভব বুঝে সম্প্রতি সেনার প্রাণ বাঁচানোতেই গুরুত্ব দেয় কিভ। কথা শুরু হয় মস্কোর সঙ্গে। সম্প্রতি রাষ্ট্রপুঞ্জের উদ্যোগে নিরাপদ করিডর দিয়ে সাধারণ নাগরিকদের উদ্ধার করা হয়। তবে বেসমেন্টে রয়ে যান প্রায় ৬০০ সেনাকর্মী। তাঁদেরই ২৫৬ জন আত্মসমর্পণ করেছেন। বাকিদেরও একই ভাব উদ্ধারের পরিকল্পনা রয়েছে।

তবে মস্কোর তরফে নিরাপত্তার আশ্বাস মিললেও যুদ্ধবন্দি ইউক্রেনের জওয়ানেরা ঘরে না ফেরা পর্যন্ত স্বস্তি মিলছে না কিভ প্রশাসনের। আজ রুশ পার্লামেন্টে নিম্নকক্ষের বৈঠকে এক সদস্য বলেন, ‘‘ইউক্রেনের যুদ্ধবন্দিদের মৃত্যুদণ্ড দেওয়া উচিত। আমাদের বন্দিদের উপরে ওরা যা অত্যাচার করেছে, মানবতার উপরে যে নিষ্ঠুরতা হেনেছে, তার পরে ওদের বেঁচে থাকার কোনও অধিকার নেই।’’

এই উদ্ধারকাজের মাঝেও হামলা জারি রেখেছে রাশিয়া। সোমবার পূর্ব ইউক্রেনের ডনেৎস্কে রুশ হামলায় ৯ জন নিহত হয়েছেন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement