Advertisement
০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
South Korea

‘ভূতের উৎসবে’ ভয়াবহ কাণ্ড দক্ষিণ কোরিয়ায়, ভিড়ে পদপিষ্ট হয়ে মৃত শতাধিক, বহু জখম

শনিবার রাতে সোলের একটি বাজারে প্রায় লক্ষ লোকের ভিড় হয়েছিল। একটি সঙ্কীর্ণ গলিতে কয়েকশো দোকানের ভিতর বহু ক্রেতা ছিলেন। রাস্তায়ও জমায়েত ছিল। সে সময়ই এই বিপর্যয় ঘটে।

বিপর্যয়ের পর সোলের রাস্তায় চলছে প্রাথমিক চিকিৎসা।

বিপর্যয়ের পর সোলের রাস্তায় চলছে প্রাথমিক চিকিৎসা। ছবি: রয়টার্স।

সংবাদ সংস্থা
সোল শেষ আপডেট: ২৯ অক্টোবর ২০২২ ২৩:০১
Share: Save:

হ্যালোউইনের রাত উদ্‌যাপনের আগেই বড়সড় বিপর্যয় দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সোলে। শনিবার সোলের একটি সঙ্কীর্ণ গলিতে প্রায় লক্ষ লোকের ভিড় পদপিষ্ট হয়ে হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হলেন জনা পঞ্চাশেক। জখম হয়েছেন কমপক্ষে একশো জন। প্রশাসনের আশঙ্কা, এই ঘটনায় কয়েক জনের মৃত্যু পর্যন্ত হয়েছে। যদিও প্রশাসনের তরফে সেই পরিসংখ্যান প্রকাশ্যে আনা হয়নি। আহতদের দ্রুত চিকিৎসার ব্যবস্থা করার জন্য প্রশাসনিক কর্তাদের নির্দেশ দিয়েছেন দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট ইয়ুন সুক ইয়ুল।

Advertisement

৩১ অক্টোবর হ্যালোউইন। তা উদ্‌যাপনের জন্য সোলের প্রাণকেন্দ্রে একটি বাজারে কেনাকাটায় ব্যস্ত ছিলেন মানুষজন। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের দাবি, শনিবার রাতে সোলের আইটেওন জেলায় ওই বাজারে প্রায় লক্ষ লোকের ভিড় হয়েছিল। একটি সঙ্কীর্ণ গলিতে কয়েকশো দোকানের ভিতর বহু ক্রেতা ছিলেন। রাস্তায়ও জমায়েত ছিল। সে সময়ই এই বিপর্যয় ঘটে।

‘দ্য কোরিয়া হেরাল্ড’ নামে এক সংবাদমাধ্যম জানিয়েছেন, স্থানীয় সময় অনুযায়ী শনিবার মাঝরাতের কিছু আগে ওই বাজারে ভিড়ের চাপ বাড়তে থাকে। তার জেরে একটি হোটেলের কাছে ডজনখানেক মানুষ জ্ঞান হারান। ভিড়ের চাপে অনেকেই হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হন বলে দাবি। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যায় দমকলবাহিনী। দমকল জানিয়েছে, শ্বাসকষ্টের সমস্যা জানিয়ে স্থানীয়দের কাছ থেকে ৮১টি রিপোর্ট পেয়েছেন তারা। প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, আহতদের মধ্যে এমন বহু তরুণী রয়েছেন, যাঁদের বয়স কুড়ির কোঠায়।

গোটা ঘটনার ছবি হু হু করে ছড়িয়ে পড়ে নেটমাধ্যমে। অসংখ্য ভাইরাল ভিডিয়োয় দেখা গিয়েছে, স্থানীয়েরাই আহতদের চিকিৎসায় রাস্তায় নেমে পড়েছেন। হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হওয়া ঠেকাতে অনেককেই রাস্তায় বসে পড়ে সিপিআর দেওয়ার চেষ্টা করতে দেখা গিয়েছে। আহতদের তড়িঘড়ি স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। ভয়ে-আতঙ্কে অনেকে চিৎকার করতে থাকেন।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.