Advertisement
০৫ মার্চ ২০২৪
Rishi Sunak

‘ঋষি সুনকের শরণার্থী নীতি অসাংবিধানিক এবং অমানবিক’, রায় দিল ব্রিটেনের সুপ্রিম কোর্ট

নয়া বিধিতে বলা হয়েছে, ইংলিশ চ্যানেল পেরিয়ে যে সব শরণার্থী ছোট ছোট নৌকা করে ব্রিটেনের উপকূলে এসে পৌঁছন, তাঁদের ব্রিটেনে শরণার্থীর মর্যাদা দেওয়া যাবে না।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনক।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনক। — ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
লন্ডন শেষ আপডেট: ১৫ নভেম্বর ২০২৩ ২২:১২
Share: Save:

ব্রিটেনের সুপ্রিম কোর্টে বড় ধাক্কা খেলেন প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনক। বুধবার পাঁচ বিচারপতির সাংবিধানিক বেঞ্চ সুনকের সরকারের নয়া শরণার্থী বিধিকে সরাসরি ‘অসাংবিধানিক’ বলে চিহ্নিত করেছে। ‘তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে’ পাঁচ বিচারপতি ঐকমত্যের ভিত্তিতে সুনকের শরণার্থী সংক্রান্ত নয়া বিধিকে খারিজ করেছে।

বেঞ্চের মন্তব্য, ‘‘এই নীতি কার্যকর হলে ব্রিটেনে আশ্রয়প্রার্থীদের জোর করে তৃতীয় কোনও দেশে পাঠানো হবে। ফলে তাঁদের মধ্যে অপরাধ প্রবণতা বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে পুরোমাত্রায়। জুলাই মাসে দীর্ঘ বিতর্কের পরে ব্রিটেনের পার্লামেন্টে নয়া শরণার্থী বিল পাশ করেছিল। কিন্তু আদালতের রায়ে তা কার্যকর নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হল। যদিও সুনক বুধবার বলেন, আমরা নতুন শরণার্থী নীতি কার্যকরের ক্ষেত্রে ইতিমধ্যেই পদক্ষেপ শুরু করেছি।

প্রসঙ্গত, ঋষি সুনকের পূর্বসূরি বরিস জনসন প্রথম ‘রোয়ান্ডা প্ল্যান’-এর ঘোষণা করেছিলেন। কিন্তু সেই পরিকল্পনা বাতিল করে দেয় মানবাধিকার বিষয়ক ইউরোপীয় আদালত। প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পরে সুনক ‘নৌকা ফেরত পাঠাও’ নামের বিলটি পার্লামেন্টে পেশ করেন। বিলে বলা হয়, ইংলিশ চ্যানেল পেরিয়ে যে সব শরণার্থী ছোট ছোট নৌকা করে ব্রিটেনের উপকূলে এসে পৌঁছন, তাঁদের ব্রিটেনে শরণার্থীর মর্যাদা দেওয়া যাবে না। ব্রিটেনের পছন্দ মতো কোনও ‘তৃতীয়’ দেশ, যেমন আফ্রিকার অত্যন্ত দরিদ্র দেশ রোয়ান্ডায়, পাঠিয়ে দেওয়া হবে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE