Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

Afghanistan Crisis: আফগানিস্তান থেকে ৩১ অগস্টই সেনা সরবে কি না ২৪ ঘণ্টার মধ্যে জানাতে পারেন বাইডেন

সেনা সরানোর নিয়ে আমেরিকাকে হুঁশিয়ারি দিয়েছে তালিবান। নির্দিষ্ট সময়ে সেনা প্রত্যাহার না করলে পরিণতির জন্য প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে।

সংবাদ সংস্থা
কাবুল ২৪ অগস্ট ২০২১ ০৮:৩৩
আফগানিস্তানে আমেরিকার সেনা।

আফগানিস্তানে আমেরিকার সেনা।
ছবি— রয়টার্স।

৩১ অগস্টের মধ্যেই তালিবান নিয়ন্ত্রিত আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করার লক্ষ্য নিয়েই চলছে আমেরিকা। তবে এ বিষয়ে শীঘ্রই সিদ্ধান্ত জানাতে পারেন আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। পেন্টাগন সূত্রে খবর, আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এ ব্যাপারে ঘোষণা করতে পারেন বাইডেন।

প্রেসিডেন্ট বাইডেন সম্প্রতি জানিয়েছিলেন, সে দেশের নাগরিকদের ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত আফগানিস্তানের মাটি ছাড়বে না আমেরিকার সেনা। তার পরই আফগানিস্তানথেকে সেনা সরানোর সময়সীমা নিয়ে আমেরিকারকে হুঁশিয়ারি দিয়েছে তালিবান। তালিবানের তরফে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘চুক্তি অনুযায়ী ৩১ অগস্টের মধ্যেসেনা প্রত্যাহার সম্পূর্ণ না হলে তার পরিণতির জন্য আমেরিকাকে প্রস্তুত থাকবে হবে।’

সোমবারও প্রচুর মানুষ দেশ ছাড়ার জন্য জড়ো হয়েছিলেন কাবুল বিমানবন্দরে। কাগজপত্র দেখিয়ে সকলেই মরিয়া হয়ে উঠেছেন আফগানিস্তান ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়ার জন্য। হোয়াইট হাউসের তরফে জানানো হয়েছে, সোমবার ১০ হাজার ৯০০ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। ১৪ অগস্ট থেকে এয়ারলিফ্ট করা হয়েছে প্রায় ৪৮ হাজার জনকে।

Advertisement

হোয়াইট হাউসের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জাকে সুলিভান জানিয়েছেন, রাজনৈতিক এবং নিরাপত্তা সূত্রের মাধ্যমে তালিবানের সঙ্গে রোজ কথা চালাচ্ছে আমেরিকা। সময়সীমা বৃদ্ধির বিষয় নিয়ে প্রতিদিন পর্যালোচনার পথে হাঁটছে আমেরিকা। এ নিয়ে পেন্টাগনের মুখপাত্র জন কিরবি বলেছেন, ‘‘আফগানিস্তানে থাকা সেনাদের যদি মনে হয় সময়সীমা বৃদ্ধির প্রয়োজনীয়তা আছে, তা হলেই তা জানানো হবে প্রেসিডেন্টকে। কিন্তু এখনও সেই পরিস্থিতিতে যায়নি আমরা।’’

তালিবানের সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী আফগানিস্তান থেকে সেনা সরানো শুরু করে আমেরিকা। তার পরই সে দেশের একের পর এক প্রদেশের দখল যায় তালিবানের হাতে। যদিও পঞ্চশিরে তালিবানের বিরুদ্ধে লড়াই চালাচ্ছে নর্দান অ্যালায়েন্স। কত দিন তালিবানের বিরুদ্ধে তারা লড়াই চালাতে পারে, সেটাই দেখার।

আরও পড়ুন

Advertisement