×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৮ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

ইমপিচমেন্টের দাবি জোরালো হতেই ভিডিয়ো বার্তায় ‘শান্তি’ চাইলেন ট্রাম্প

সংবাদ সংস্থা
ওয়াশিংটন ০৮ জানুয়ারি ২০২১ ০৯:০৯
ডোনাল্ড ট্রাম্প। ছবি ভিডিয়ো থেকে নেওয়া।

ডোনাল্ড ট্রাম্প। ছবি ভিডিয়ো থেকে নেওয়া।

ক্যাপিটলে তাঁর সমর্থকরা তাণ্ডব চালানোর পর থেকে গোটা বিশ্ব কাঠগড়ায় তুলেছে আমেরিকার বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে। সেই ক্ষতে এ বার প্রলেপ দেওয়ার চেষ্টা করলেন খোদ ট্রাম্প। নব নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের হাতে মসৃণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তরের কথা বলে এক ভিডিয়ো বার্তাতে শান্তির বার্তা দিলেন তিনি। ‘আরোগ্য এবং পুনর্মিলনের’ জন্য সকলের কাছে আবেদনও করেছেন ট্রাম্প।

৩ মিনিটের একটু কম সময়ের ভিডিয়ো বার্তায় ট্রাম্প বলেছেন, “আমার এখন লক্ষ্য মসৃণ ভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর। ২০ জানুয়ারি নতুন প্রশাসন কাজ শুরু করবে। তার আগে আমি সব বুঝিয়ে দিতে চাই।” ক্ষমতা হস্তান্তরের আগে ক্যাপিটলের তাণ্ডব নিয়ে চাপ বাড়ছিল ট্রাম্পের উপর। বিভিন্ন মহল থেকে তাঁকে ইমপিচমেন্টের দাবিও তোলা হচ্ছে। এই আবহেই অবশেষে মুখ খুলেছেন ট্রাম্প।

ক্যাপিটলে হামলার ঘটনার নিন্দা করে তিনি বলেছেন, “হিংসা, আইনঅমান্য এবং দাঙ্গা দেখে আমি ক্ষিপ্ত। যাঁরা হিংসার সঙ্গে যুক্ত তাঁরা আমেরিকার প্রতিনিধিত্ব করেন না। আমেরিকা আইন মেনে চলে।” ক্যাপিটল বিল্ডিংকে সুরক্ষিত রাখতে ন্যাশনাল গার্ড মোতায়েন করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

Advertisement

ডিস্ট্রিক্ট অব কলম্বিয়ায় নিযুক্ত আমেরিকার অ্যাটর্নি জেনারেল মাইকেল শেরউইন ইতিমধ্যেই ক্যাপিটল হামলার ঘটনা নিয়ে ১৫টি মামলা দায়ের করেছেন উন্মত্ত ট্রাম্প সমর্থকদের বিরুদ্ধে। তিনি বলেছেন, “হামলাকারীদের বিরুদ্ধে যত সংখ্যক মামলা করা যায় আমরা করব।’’ এই হামলার ঘটনার পর ডেমোক্র্যাটরা তো বটেই অনেক রিপাবলিকানও ট্রাম্পের ইমপিচমেন্টের কথা তুলেছিলেন। প্রেসিডেন্ট সময়কালের শেষ মুহূর্তে এসে বরখাস্ত হওয়ার আশঙ্কায় চাপে ছিলেন ট্রাম্পও। তার পরই এই হামলা নিয়ে মুখ খুললেন আমেরিকার বিদায়ী প্রেসিডেন্ট।

Advertisement