×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৩ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

হয়তো আমাদের মধ্যেই বসবাস করছে ভিন গ্রহের প্রাণীরা, দাবি প্রথম ব্রিটিশ মহাকাশচারীর

সংবাদ সংস্থা
লন্ডন ০৭ জানুয়ারি ২০২০ ১৬:০৩
প্রতীকী চিত্র। ইনসেটে হেলেন শরমন।

প্রতীকী চিত্র। ইনসেটে হেলেন শরমন।

পৃথিবী ছাড়াও নাকি এই মহাবিশ্বে আরও বুদ্ধিমান প্রাণী রয়েছে। অথবা এলিয়েন বা ভিন গ্রহের প্রাণিদের মহাকাশ যান দেখেছেন বলেও অনেকে দাবি করেন। তবে এবার এই সব কিছু ছাড়িয়ে ব্রিটেনের প্রথম মহাকাশচারী হেলেন শরমন দাবি করলেন, পৃথিবীতেই আমাদের মাঝে হয়তো রয়েছে এলিয়নরা।

হেলেন ১৯৯১ সালে সোভিয়েত মির স্পেস স্টেশনে গিয়েছিলেন। রবিবার তিনি একটি সংবাদপত্রকে বলেন,“মহাবিশ্বে কোটি কোটি গ্রহ তারা রয়েছে। সেখানে কোথাও অন্য কোনও রূপে প্রাণ থাকতে পারে। হতে পারে সেই প্রাণীরা আমার আপনার মতো কার্বন, নাইট্রোজেনদিয়েই তৈরি, আবার অন্য কোনও রকমও হতে পারে।”

তবে এর পর হেলেন যা বলেন তা চমকে দেওয়ার মতো। হেলেন বলেন, “এমনও হতে পারে আমাদের মধ্যেই ভিন গ্রহের প্রাণীরা রয়েছে। অথচ আমরা তাদের দেখতে পাই না।” ১৯৯১ সালে রসায়নবিদ হেলেন মাত্র ২৭ বছর বয়সে স্পেস মিশনে গিয়েছিলেন। কম বয়সে মহাকাশে যাওয়া নভশ্চরদের মধ্যে তিনি অন্যতম।

Advertisement

বিমান থেকে অজ্ঞাত মহাকাশ যান দেখা গিয়েছে বলে একাধিকবার দাবি উঠেছে। তাদের স্বপক্ষে নানান ভিডিয়োও প্রকাশ করা হয়েছে। সেই ভিডিয়ো নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে সংবাদমাধ্যমে কাটা-ছেঁড়াও হয়েছে।

দেখুন ভিডিয়ো:

এক প্রাক্তন পেন্টাগন অফিসার একটি তদন্তমূলক গবেষণার নেতৃত্ব দেন। ২০১৭ সালে সেই গবেষণার উদ্দেশ্য ছিল, আনআইডেন্টিফাডেয় ফ্লাইং অবজেক্ট (ইউএফও) বা ভিন গ্রহের প্রাণীদের মহাকাশ যানের অস্তিত্ব রয়েছে কিনা খুঁজে দেখা। সংবাদমাধ্যম সিএনএন-কে এক সাক্ষাত্কারে তিনি বলেন, ‘‘তাঁর বিশ্বাস এমন প্রমাণ রয়েছে যা থেকে বলা যায়, এই পৃথিবীতে ভিন গ্রহের প্রাণীরা আসতে পারে।’’

Advertisement