Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

এফবিআই জালে ওয়ানাক্রাই-হিরো

‘ওয়ানাক্রাই’ নিয়ে যখন নাজেহাল নানা দেশ, তখন সমাধানসূত্র বাতলে দিয়েছিলেন এই মার্কাস হাচিনসই। এ হেন স্বঘোষিত সাইবার-বিশেষজ্ঞ হাচিনসকে ব্যাঙ্কি

সংবাদ সংস্থা
নিউ ইয়র্ক ০৫ অগস্ট ২০১৭ ০৩:০২
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

এক সময়ে দুনিয়া জোড়া সাইবার হানা রুখে দিয়ে খবরের শীর্ষে এসেছিলেন তিনি। ‘ওয়ানাক্রাই’ নিয়ে যখন নাজেহাল নানা দেশ, তখন সমাধানসূত্র বাতলে দিয়েছিলেন এই মার্কাস হাচিনসই। এ হেন স্বঘোষিত সাইবার-বিশেষজ্ঞ হাচিনসকে ব্যাঙ্কিং ওয়েবসাইটগুলোতে ‘ক্রোনোস’ নামে একটি ম্যালওয়ার ছড়িয়ে দেওয়ার অপরাধে গ্রেফতার করল এফবিআই।

‘ম্যালওয়ারটেক’ নামে একটি ব্লগ লেখেন হাচিনস। টুইটারেও তিনি বেশ জনপ্রিয়। তবে ওয়ানাক্রাই-পর্বের আগে তাঁর নাম জানতেন না তেমন কেউই। গত মে মাসে র‌্যানসামওয়্যারের হাত থেকে ব্রিটেনের ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিস, বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থা, নানা দেশের সরকারি ওয়েবসাইটকে বাঁচিয়ে, শিরোনামে আসেন হাচিনস। সে সময়ে গোটা বিশ্বে প্রায় তিন লক্ষ কম্পিউটার সংক্রামিত হয়েছিল ওয়ানাক্রাই র‌্যানসামওয়্যারে। আক্রান্ত কম্পিউটারগুলোর সমস্ত তথ্য বেহাত হয়ে যায়। ফতোয়া ছিল, ৩০০ ডলার বিটকয়েন ‘র‌্যানসাম’ দিলে তবেই ফেরত মিলবে তথ্য।

আরও পড়ুন: সাইবার মামলায় গ্রেফতার ‘ওয়ানাক্রাই’ হামলা রুখে দেওয়া সেই যুবক

Advertisement

কিন্তু হাচিনসকে হঠাৎ গ্রেফতার করা হল কেন? এফবিআইয়ের দাবি, ‘ক্রোনোস’ নামে একটি ম্যালওয়ার তৈরি করেছেন হাচিনস, যার আক্রমণে কানাডা ও গোটা ইউরোপের ব্যাঙ্কিং ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। অভিযোগপত্রে বলা হয়েছে, হাচিনস ‘সজ্ঞানেই’ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছিলেন। ২০১৩ সালে তিনি এই ম্যালওয়্যারটি তৈরি করেন। ২০১৪ সাল থেকে সক্রিয় এই ম্যালওয়্যার। ব্যাঙ্কিং সিস্টেম থেকে বিভিন্ন তথ্য, যেমন ইউসার নেম, পাসওয়ার্ড সহজেই চুরি করে নিত ‘ক্রোনোস’। অর্থাৎ সরাসরি হ্যাকিংয়ের জন্য অভিযুক্ত নন হাচিনস। বরং তিনি জেনেবুঝে এমন সাইবার-হাতিয়ার তৈরি করেছিলেন, যা কি না অনলাইন অপরাধে ব্যবহার করা হতো। আইবিএম-এর ব্লগে লেখা হয়েছে, ইতিমধ্যেই রাশিয়া এই ম্যালওয়্যারটি ব্যবহার করেছে। ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার, ফায়ারফক্স বা ক্রোম, যে কোনও ব্রাউজারেই কাজ করতে পারে ‘ক্রোনোস’। আর সব চেয়ে মজার খবর, সহজেই যে কোনও অ্যান্টিভাইরাসের নজর এড়িয়ে সিস্টেমে গা ঢাকা দিতে পারে সে।

হাচিনসের বাড়ি ব্রিটেনে। সম্প্রতি হ্যাকারদের নিয়ে একটি বৈঠকে যোগ দিতে লাস ভেগাস গিয়েছিলেন তিনি। ফেরার সময়ে মাঝপথেই গ্রেফতার করা হয় ওয়ানাক্রাই-হিরোকে।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement