মার্কিন সংস্থা টেলিউরিয়ান আইএনসি-তে ২৫০ কোটি মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করবে ভারতের বৃহত্তম তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) আমদানিকারী সংস্থা পেট্রোনেট। এর ফলে এ বার থেকে প্রতি বছর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে ৫০ লক্ষ টন এলএনজি আমদানি করতে পারবে ভারত। মার্কিন শিল্পপতিদের ভারতে বিনিয়োগে উৎসাহী করে তুলতে এবং বিভিন্ন তেল উৎপাদনকারী সংস্থার সিইও-দের সঙ্গে বৈঠক করতে এই মুহূর্তে হিউস্টনে রয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। শনিবার সেখানেই এমন ঘোষণা হল। টেলিউরিয়ান আইএনসি ও পেট্রোনেটের মধ্যে এই সংক্রান্ত একদফা কথাবার্তা গত ফেব্রুয়ারি মাসেই হয়ে গিয়েছিল। সূত্রের খবর, ফেব্রুয়ারি মাসে প্রাথমিক মউ স্বাক্ষরিত হলেও, ভারতের সুবিধার্থে তাতে বেশ কিছু রদবদল ঘটানো হয়েছে। ২০২০-র ৩১ মার্চ এই সমঝোতায় চূড়ান্ত সিলমোহর পড়বে।

টেলিউরিয়ান আইএনসি-র তরফে একটি বিবৃতি জারি করে বলা হয়, ‘‘নরেন্দ্র মোদীর উপস্থিতিতে মউ স্বাক্ষরিত হয়েছে। এর ফলে কম দামে, পরিশোধিত, প্রাকৃতিক গ্যাস আমদানি করতে পারবে ভারতের বৃহত্তম এলএনজি আমদানিকারী সংস্থা পেট্রোনেট। প্রাকৃতিক গ্যাসের ব্যবহার বাড়লে ভারতের অর্থনীতিতে ইতিবাচক প্রভাব পড়বে। আরও দ্রুত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ৫ লক্ষ কোটি অর্থনীতি গড়ে তোলার লক্ষ্যে পৌঁছনো সম্ভব হবে। সেই সঙ্গে কম হবে পরিবেশ দূষণও।’’

টেলিউরিয়ান আইএনসি-র সিইও মেগ জেন্টল বলেন, ‘‘নরেন্দ্র মোদীর উপস্থিতিতে পেট্রোনেটের সঙ্গে মউ স্বাক্ষর করতে পেরে সম্মানিত বোধ করছি আমরা। পেট্রোনেটের সঙ্গে এই ব্যবসায়িক সম্পর্ক দীর্ঘস্থায়ী এবং ফলপ্রসূ হবে বলে আশা আমাদের।’’

আরও পড়ুন: ফের ‘সক্রিয়’ বালাকোটের জঙ্গি ঘাঁটি, গোয়েন্দা রিপোর্টে চাঞ্চল্য​

গাড়ি-সহ একাধিক শিল্পে মন্দা দেখা দেওয়ায় এই মুহূর্তে ভারতীয় অর্থনীতি ধুঁকছে। পরিস্থিতির মোকাবিলায় ইতিমধ্যেই একগুচ্ছ প্রকল্প ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। তার মধ্যেই এক সপ্তাহব্যাপী হিউস্টন সফরে গিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী। বেকার হিউজ, ডমিনিয়ন এনার্জি, এমার্সন ইলেকট্রিক কোম্পানি-সহ মোট ১৭টি শীর্ষস্থানীয় সংস্থার সিইও-দের সঙ্গে গোলটেবল বৈঠক করেন তিনি। বিদ্যুৎ ও প্রাকৃতিক শক্তি-সহ একাধিক ক্ষেত্রে দুই দেশের মধ্যে ব্যবসায়িক সম্পর্কে উন্নতি ঘটাতেই এই উদ্যোগ‌ বলে জানান বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র রভিশ কুমার।

আরও পড়ুন: ‘ছোটখাটো বিষয়েও এত নজর!’ বিমানবন্দরে মোদীর বিশেষ সৌজন্য নিয়ে প্রশংসার ঝড়​

এর পাশাপাশি, রবিবার হিউস্টনে ৫০ হাজার প্রবাসী ভারতীয়র উদ্দেশে বক্তৃতা করবেন মোদী। সেখানে উপস্থিত থাকবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পও।