শনিবারই ‘হাউডি মোদী’ মেগা ইভেন্টের জন্যে হিউস্টন পৌঁছেছেন নরেন্দ্র মোদী। বিমানবন্দরে তাঁকে শুভেচ্ছা জানাতে উপস্থিত ছিলেন মার্কিন ও ভারতীয় আধিকারিকরা। এয়ারপোর্টে তিনি পা রাখতেই প্রথামাফিক অভিবাদন জানানো হয় তাঁকে। এই সময়েই প্রধানমন্ত্রীর অভিবাদন গ্রহণের ভঙ্গি নিয়ে আপাতত মশুগুল নেটিজেনরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রশংসার বন্যা বইছে এই বিশেষ মুহূর্তে নরেন্দ্র মোদীর একটি সৌজন্য বিনিময়ের কায়দা নিয়ে।

শনিবার বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে অভ্যর্থনা জানাতে উপস্থিত ছিলেন ক্রিস্টোফর ওলসন (মার্কিন বাণিজ্য ও আন্তর্জাতিক বিষয়ক নির্দেশক), কেনিথ জাস্টার (মার্কিন রাষ্ট্রদূত), হর্ষবর্ধন সৃঙ্গলা(ভারতীয় রাষ্ট্রদূত)। ভাইরাল হওয়া ভিডিয়োটিতে দেখা যায়, এই আধিকারিকরা প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে একটি ফুলের তোড়া দেন, ফুলের তোড়াটি তিনি নেওয়ার পরে আচমকাই মাটিতে পড়ে যায়। প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই প্রধানমন্ত্রী স‌েই ফুলের তোড়া মাটি থেকে তুলে তাঁর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা এক কর্মীর হাতে তুলে দেন। তাঁর এই সহজ অভিব্যক্তিকেই প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন নেটিজেনরা।

এক ফেসবুক ব্যবহারকারী লিখেছন,‘মাটিতে পড়ে যাওয়া ফুলের তোড়াটি কত সহজেই কুড়িয়ে নিলেন একজন প্রধানমন্ত্রী। কী সারল্য!’ অন্য আরেকজন আবার লিখেছেন, ‘এই ঘটনাই প্রমাণ করে কত ছোটখাটো বিষয়েও তিনি নজর রাখেন।’

দেখুন সেই ভিডিও:

 

দ্বিতীয় দফার কর্যকাল শুরু করার পরে প্রধানমন্ত্রী এই প্রথমবার এক সপ্তাহের জন্যে আমেরিকা এলেন। এখানে দু’বার মার্কিন প্রেসিডেন্টের মুখোমুখি হবেন তিনি। একবার রবিবারের হাউডি মোদী অনুষ্ঠানে ৫০ হাজার মানুষের সামনে। তার পরে তাঁদের আবার দেখা হবে রাষ্ট্রপুঞ্জের অনুষ্ঠানে।

আরও পড়ুন:আজ ঐতিহাসিক ‘হাউডি মোদী’ সমাবেশ, সভায় যোগ দিতে হিউস্টনে মোদী
আরও পড়ুন:ক্যানসারের বিরুদ্ধে লড়াই করেও শতাধিক শিশুর মুখে খাবার তুলে দেন ইনি

শনিবার প্রধানমন্ত্রী হিউস্টনের কিছু ছবিও শেয়ার করেন তাঁর টুইটার হ্যান্ডলে। সেখানে তিনি লেখেন, ‘‘এই প্রাণবন্ত শহরে বেশ কয়েকটি কর্মসূচির পরিকল্পনা রয়েছে।’’