Advertisement
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Ashwini Vaishnaw

ভারতে তৈরি চিপ পরের বছর: বৈষ্ণব

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আমেরিকা সফরে দু’দেশের যৌথ বিবৃতির পরে অশ্বিনী জানান, গুজরাতে আমেরিকার সংস্থা মাইক্রন টেকনোলজিসের সেমিকনডাক্টর কারখানায় মোট লগ্নি প্রায় ২২,৫৪০ কোটি টাকা।

An image of Ashwini Vaishnav

মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব। —ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ২৪ জুন ২০২৩ ০৮:৫৯
Share: Save:

ভারতে তৈরি প্রথম সেমিকনডাক্টর ২০২৪ সালের ডিসেম্বরেই মিলবে বলে শুক্রবার দাবি করলেন মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব। সঙ্গে তাঁর আশা, এক বছরে এমন চার-পাঁচটি কারখানা গড়ে উঠবে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আমেরিকা সফরে দু’দেশের যৌথ বিবৃতির পরে অশ্বিনী জানান, গুজরাতে আমেরিকার সংস্থা মাইক্রন টেকনোলজিসের সেমিকনডাক্টর কারখানায় মোট লগ্নি প্রায় ২২,৫৪০ কোটি টাকা (২.৭৫ ডলার)। প্রকল্পের জমি বরাদ্দ করা, কারখানার নকশা তৈরি, কর সংক্রান্ত চুক্তি সম্পূর্ণ। সেখানে প্রত্যক্ষ কর্মসংস্থান হবে ৫০০০। কয়েক বছর ধরে পরোক্ষে প্রায় ১৫,০০০ কাজ তৈরি হবে।

প্রসঙ্গত, ওই সংস্থাটি অবশ্য লগ্নি করছে ৬৭৬০ কোটি টাকা (৮২.৫ কোটি ডলার)। বাকিটা দুই পর্যায়ে ঢালবে সরকার। মাইক্রনের সহায়ক হিসেবে আসবে আরও ২০০টি-রও বেশি ছোট সংস্থা। কম্পিউটার তো বটেই, গাড়ি-সহ নানা ক্ষেত্রে চিপের চাহিদা তুঙ্গে। প্রায় পুরোটাই ভারত আমদানি করে। অতিমারি ও রাশিয়া-ইউক্রেনের যুদ্ধের জেরে চিপের জোগান নিয়ে ওঠাপড়া এখনও চলছে।

তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী রাজীব চন্দ্রশেখরের দাবি, মোদীর সফরে প্রযুক্তি ক্ষেত্রে মাইক্রন, অ্যাপ্লায়েড মেটেরিয়ালস ও ল্যাম রিসার্চের মতো সংস্থার ঘোষণা করা লগ্নির হাত ধরেই প্রায় ৮০,০০০ প্রত্যক্ষ কাজ তৈরি হবে। কর্মসংস্থানের নিরিখেই নয়, সেগুলি দেশে বৈদ্যুতিন ও সেমিকনডাক্টরের সহায়ক পরিবেশ গড়তে অনুঘটকের ভূমিকা নেবে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE