বিএসএনএলের পুনরুজ্জীবন নিয়ে জল্পনা চললেও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি। এরই মধ্যে পশ্চিমবঙ্গে সংস্থাটির দুই শাখা ওয়েস্ট বেঙ্গল সার্কল এবং ক্যালকাটা টেলিফোন্সের শীর্ষ কর্তাদের দাবি, সাম্প্রতিক কালে তাঁদের ব্যবসা বেড়েছে। ৪জি পরিষেবা চালুর জন্য পরিকাঠামো তৈরির কাজও এগিয়েছে অনেকটা। স্পেকট্রাম মিললেই দ্রুত সেই পরিষেবা চালু করা সম্ভব। 

বৃহস্পতিবার সংস্থাটির সদর দফতর দাবি করেছিল, পুনরুজ্জীবনের কথা কেন্দ্র গুরুত্ব দিয়ে ভাবছে। শুক্রবার ওয়েস্ট বেঙ্গল সার্কলের সিজিএম রমাকান্ত শর্মা জানান, তাঁদের এলাকায় ৪জি পরিষেবার যন্ত্রাংশ-সহ হার্ডওয়্যারের কাজ প্রায় শেষ। স্পেকট্রাম পাওয়ার দু’মাসের মধ্যে ওই পরিষেবা চালু করা যাবে। ক্যালকাটা টেলিফোন্সের সিজিএম বিশ্বজিৎ পাল জানান, ৪জি পরিষেবার জন্য প্রথম পর্যায়ের যন্ত্রাংশ বসানোর কাজ মাস কয়েকের মধ্যে শেষ হবে। তাদের ৪জি স্পেকট্রাম দেওয়ার বিষয়টি কেন্দ্র বিবেচনা করছে বলে বৃহস্পতিবারই জানিয়েছিল সংস্থাটি। দুই শীর্ষ কর্তার দাবি, এ রাজ্যে তাঁদের নতুন গ্রাহকও বাড়ছে। তার সঙ্গে সাযুজ্য রেখে গড়া হচ্ছে পরিকাঠামো।