শো-রুম থেকে সোজা বাড়ি নিয়ে আসুন আপনার পছন্দের গাড়ি। এমনই সুযোগ এনেছে ভারতের নানান বহুজাতিক গাড়ি প্রস্তুতকারক সংস্থা। শো-রুম থেকে পছন্দসই গাড়ি  নিজের বাড়িতে নিয়ে যেতে আর প্রয়োজন হবে না কোনও ডাউন পেমেন্টের। এ ছাড়াও সহজ, ঝামেলাহীন সার্ভিসিং এর মধ্যে দিয়ে আপনি যে কোনও পছন্দের গাড়ি ভাড়ায় নিতে পারেন। এই সুযোগ নিয়ে এসেছে হুন্ডাই, মহিন্দ্রা,স্কোডা, এবং ফিয়াট।

আরও পড়ুন:  গতি আর থ্রিল নিয়ে বাজারে এল ডুকাটির নতুন বাইক, দাম...

আরও পড়ুন:  ড্রোন-এ চেপে খাবার এ বার আপনার দোরগোড়ায়- জোম্যাটোর নতুন পরিষেবা

 

দক্ষিণ কোরিয়ার বহুজাতিক গাড়ি প্রস্তুতকারক সংস্থা হুন্ডাই ভারতীয় বাজারে তাঁদের নতুন এসইউভি ক্রেটারপাঁচ বছরেরজন্য মাসিক ইএমআই জিএসটি-সহ ধার্য করেছে ১৭ হাজার ছ’শ বিয়াল্লিশ টাকা। এর আগে এই গাড়ি পেতে ডাউন পেমেন্ট হিসাবে গুনতে হত দু’লক্ষ ৭৩ হাজার টাকা তার সঙ্গে পাঁচ বছরের ইএমআই দিতে হত ১৮ হাজার ন’শ এক টাকা। এক্ষেত্রে গাড়ি পেতে কোনও ডাউন পেমেন্ট করতে হবে না। সাশ্রয় হবে অর্থ, লাভবান হবেন গ্রাহকরা। আর ভারতীয় বাজারে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে এক এক করে বহু দেশি বিদেশি গাড়ি প্রস্তুতকারক সংস্থা এই গাড়ি ‘লিজ’ দেওয়ার স্কিম চালু করেছে। এছাড়াও বৈদ্যুতিক স্কুটারের ক্ষেত্রেও এই লিজ স্কিম শুরু হয়েছে।

গাড়ি ‘লিজ’ দেওয়ার ক্ষেত্রে আশাবাদী মহিন্দ্রার সেলস্‌ অ্যান্ড মার্কেটিং চিফ বিজয়রাম নাকরা জানান, “গাড়ি লিজের ক্ষেত্রে সব থেকে বড় সুবিধা হল এখানে ডাউন পেমেন্ট যৎসামান্য বা বহু সময় তা দিতে হয় না। এছাড়া গাড়ির সার্ভিসিংয়ের ঝামেলাও এড়ানো যায়, তাই অনেকেই নতুন গাড়ি লিজ নেওয়ার বিষয়টি পছন্দ করছেন।”

আর্থিক ভাবে নতুন গাড়ি ‘লিজ’ ভারতীয় গাড়ি বাজারকে চাঙ্গা করতে পারে বলে মনে করছেন অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। কারণ চলতি অর্থবর্ষের প্রথম দু’মাসে গাড়ি কেনার হার প্রায় ১৯% কমে যায় ফলে নতুন ভাবে কী করে আবার ক্রেতাদের বাজারমুখী করা যায়, তার চেষ্টা করছিল গাড়ি প্রস্তুতকারক সংস্থাগুলি। গাড়ি লিজের ক্ষেত্রে যথেষ্ট আশাবাদী প্রায় প্রতিটি গাড়ি প্রস্তুতকারক সংস্থা।

যদিও এখন গাড়ি ব্যবহারকারীদের মাত্র ১% লিজে নেন। তবে সেই সংখ্যা ধীরে ধীরে বাড়বে বলেই অভিমত বিশেষজ্ঞদের। তাঁদের মতে, কিছুদিন আগেও গাড়ি কিনে মানুষ গর্ব অনুভব করতেন। কিন্তু পরিবর্তিত মানসিকতায় টাকা বাঁচানোর জন্যে অনেকেই ঝুঁকছেন শেয়ারিং-এ, সেই সূত্রেই বাজারে এসেছে এই নতুন গাড়ি লিজ স্কিম।

মারুতি সুজুকির এক্সজিকিউটিভ ডিরেক্টর  শশাঙ্ক শ্রীবাস্তব বলেন “ধীরে ধীরে এটির গ্রহণযোগ্যতা বাড়ছে। একটা সময়ের পর এই ধরনের গাড়ি লিজ বৃহত্তর জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্য হয়ে উঠবে। বাজার থেকে এখনও অবধি বেশ ভাল সাড়াই পেয়েছি।”

নিত্য নতুন অফার কিংবা ডিসকাউন্টের প্রলোভন গাড়ি কেনার ক্ষেত্রে ছিলই, এখন তাঁর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে গাড়ি লিজ যাতে পছন্দের গাড়ি হাতের নাগালে পাওয়া যাবে সহজেই।