Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৯ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

জোরালো হচ্ছে নেটকে নিরপেক্ষ রাখার দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদন
১৭ এপ্রিল ২০১৫ ০২:৫০

কোন পরিষেবার ক্ষেত্রে নিরপেক্ষ ভাবে ইন্টারনেট ব্যবহার (নেট নিউট্রালিটি) করতে দেওয়ার বিধি ভাঙা হচ্ছে আর কোন ক্ষেত্রে নয়, তাই নিয়ে তর্ক-বিতর্কে সরগরম দেশ। এরই মধ্যে বৃহস্পতিবার মিছিল করে কেন্দ্রের কাছে নেটের সব তথ্যকে সমান চোখে দেখার দাবি জানাল যুব কংগ্রেস ও ন্যাশনাল স্টুডেন্টস ইউনিয়ন অব ইন্ডিয়া। ওই ‘সেভ দ্য ইন্টারনেট মার্চ’ -এ দেশের প্রতিটি প্রান্তের মানুষই যাতে নিখরচায় ইন্টারনেটের নাগাল পান, সেই সওয়ালও করেছেন তাঁরা।

দু’পক্ষের প্রতিনিধিরা যোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী রবি শঙ্কর প্রসাদের সঙ্গে দেখা করে এ সংক্রান্ত স্মারকলিপি জমা দেন। তাঁরা জানান, ট্রাই ও টেলিকম শিল্প যাতে নেটে থাকা বিভিন্ন তথ্য নিয়ে কোনও পক্ষপাতিত্ব না-করে, সেই দাবি জানানো হয়েছে। কারণ তা নেট নিউট্রালিটির পরিপন্থী।

ক’দিন আগে এয়ারটেলের একটি প্রকল্প নিখরচায় বিভিন্ন অ্যাপ পাওয়ার সুবিধা ঘোষণা করতেই নেট নিরপেক্ষতা লঙ্ঘনের বিতর্ক দানা বাঁধে। বিষয়টিকে সমর্থন করে ওই প্রকল্পে যোগ দেবে না বলে জানায় ই-কমার্স সংস্থা ফ্লিপকার্ট। নিরপেক্ষ থাকার যুক্তিতে ফেসবুক ও রিলায়্যান্স কমিউনিকেশন্সের যৌথ উদ্যোগে তৈরি অ্যাপ, ইন্টারনেট ডট ওআরজি ছেড়ে বেরোনোর কথাও বলে কিছু সংস্থা। এই অ্যাপটির মাধ্যমে মূলত কম রোজগেরে ও গ্রামীণ মানুষকে বিনা পয়সায় চাকরি, স্বাস্থ্য ও শিক্ষা-সহ বিভিন্ন ধরনের সাইট দেখার সুযোগ করে দিয়েছে তারা।

Advertisement

নিখরচায় কিছু সাইট বা অ্যাপ পাওয়ার সুবিধাই বিতর্কের মূলে। কারণ, নেট নিউট্রালিটির মূল কথা, নেটে সব সাইট বা অ্যাপকে সমান চোখে দেখা। সব ধরনের পরিষেবায় একই মাসুল ধার্য করা। কোনও সংস্থা বা ব্যক্তিকে বিশেষ সুবিধা না-দেওয়া। সবাইকে সমান ভাবে মানুষের কাছে পৌঁছনোর সুযোগ দেওয়া। সমালোচকদের মতে, কেউ কেউ নিখরচায় পরিষেবা পেলে, মার খাবে সকলের জন্য বিনা পয়সায় পুরো নেট খুলে দেওয়ার ধারণা।

আরও পড়ুন

Advertisement