আপনি স্কুটার স্টার্ট দিলেন, অথচ কোনও শব্দ হল না! এ রকমটা শুনেছেন আগে কখনও? না-শোনা সেই ঘটনাই এ বার ঘটতে চলেছে ভারতীয় দু’চাকার বাজারে। হন্ডা আনছে তাদের অ্যাকটিভা-১২৫, বিএস-৬ রেঞ্জ।

মোটরসাইকেল এবং স্কুটার দুনিয়ায় হন্ডা অত্যন্ত পরিচিত ও প্রতিষ্ঠিত নাম। আগামী সেপ্টেম্বরেই তারা বাজারে ওই নয়া মডেলের স্কুটার বাজারে আনছে। এই স্কুটারের প্রধান বৈশিষ্ট্য, স্টার্ট দেওয়ার সময় কোনও রকম শব্দ হবে না অর্থাৎ ‘সাইলেন্ট স্কুটার’। নতুন এই মডেলে থাকবে এমন কিছু নয়া ফিচার, যা হন্ডার পুরনো অ্যাকটিভা মডেলে ছিল না। হন্ডার তরফে বুধবার জানানো হয়েছে, চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে এ দেশের বিভিন্ন শো-রুমে অ্যাকটিভা-১২৫, বিএস-৬ রেঞ্জ পাওয়া যাবে।

আরও পড়ুন: বাজার কাঁপাতে এল টিভিএস-এর নতুন স্কুটি জুপিটার জেড-এক্স, জেনে নিন এর উন্নতমানের ফিচারস….

পুরনো অ্যাকটিভার চেয়ে এই মডেলের ফিচারগুলি অনেক বেশি উন্নত। নতুন মডেলে শব্দহীন স্টার্টিং মোটরের পাশাপাশি থাকবে ‘এক্সটারন্যাল ফ্লুইড লিড’। অর্থাৎ আগের মডেলগুলোর মতো এখন থেকে আর পেট্রল ভরার সময় সিট তুলতে হবে না। বাইরেই থাকবে তেল ভরার জায়গা। সঙ্গে থাকবে ৪-ইন-১ ইগনিশন সুইচ। পেট্রল ভরার ঢাকনা কিংবা সিট— একই সুইচের মাধ্যমে খোলা যাবে। থাকবে ‘সাইড স্ট্যান্ড ইন্ডিকেটর’। অর্থাৎ  সাইডের স্ট্যান্ড ফেলা থাকলে স্কুটার স্টার্ট করা যাবে না। এতে দুর্ঘটনার সম্ভাবনা অনেকটাই এড়ানো যাবে।

এই মডেলে পেট্রল খরচও অনেক কমে যাবে, কারণ এতে থাকছে নতুন স্টপ সিস্টেম। যাতে সহজেই স্কুটারটি স্টার্ট এবং বন্ধ করার যাবে একটি মাত্র সুইচ দিয়ে। এই মডেলে এফ-১ ক্যাটালিস্ট ইঞ্জিন রয়েছে, যা জ্বালানী সাশ্রয় করবে। পুরনো অ্যাকটিভা-১২৫ মডেলে যে সিঙ্গল সিলিন্ডার ব্যবহার করা হয়, এখানেও সেই একই সিলিন্ডার রয়েছে। এ ছাড়াও নতুন সেমি-ডিজিটাল কনসোল রয়েছে যাতে স্কুটারের গতি এবং কতটা পেট্রল রয়েছে তা দেখা যাবে।

আরও পড়ুন: ভারতে প্রথমবার, 'হিল-অ্যাসিস্ট' যুক্ত ই-স্কুটার এ বার মধ্যবিত্তের নাগালে

অ্যাকটিভা-১২৫, বিএস-৬ রেঞ্জে থাকবে উন্নতমানের এলইডি হেডলাইট এবং রিফ্লেকটর। রেবেল রেড মেটালিক, ব্ল্যাক, হেভি গ্রে মেটালিক, মিডনাইট ব্লু মেটালিক, পার্ল প্রিসিয়াস হোয়াইট এবং ম্যাজেস্টিক ব্রাউন মেটালিক— এই ছ’টি রঙে অ্যাকটিভা-১২৫, বিএস-৬ রেঞ্জে পাওয়া যাবে বাজারে।

বাজারে অ্যাকটিভা-১২৫-এর দাম এখন প্রায় ৬০-৬৪ হাজার টাকা। সেখানে নতুন বিএস-৬ স্কুটারের দাম আরও ৫-৬ হাজার টাকা বেশি হবে বলে হন্ডার তরফে দাবি করা হয়েছে।