বিশ্বব্যাঙ্কের মুখ্য অর্থনীতিবিদ হিসেবে চার বছর কাজের মেয়াদ শেষ হয়েছে গত শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর)। তার পর পড়াশোনার জগতেই ফিরছেন কৌশিক বসু। আপাতত দেশে আর কোনও সরকারি পদেও দেখা যাবে না একদা ভারতের মুখ্য আর্থিক উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করা এই অর্থনীতিবিদকে।

গত কয়েক মাসে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের তদানীন্তন গভর্নর রঘুরাম রাজনের উত্তরসূরি হিসেবে অনেক বারই জল্পনায় উঠে এসেছিল কৌশিকবাবুর নাম। ৪ সেপ্টেম্বর শীর্ষ ব্যাঙ্ক ছাড়ার পরে শিকাগো বুথ স্কুল অব বিজনেসে পড়ানোর কাজেই ফিরেছেন রাজন। আর এ বার কর্নেল বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণায় ফিরতে চান কৌশিক বসুও। কেন্দ্রের কোনও পদে এই মুহূর্তে তাঁর যোগ দেওয়ার প্রশ্ন নেই বলেও স্পষ্ট জানিয়েছেন তিনি। কৌশিকবাবুর বলেন, ‘‘এর পিছনে দু’টি কারণ রয়েছে। এক, সরকার আমাকে কোনও পদ দেবে না। দুই, আমি নেবও না।’’ বরং তাঁর কাছে গুরুত্বপূর্ণ হল নিজের গবেষণা শেষ করা। বিশেষ করে কেন বিভিন্ন আইন খাতায়-কলমে ভাল হলেও, কাজের ক্ষেত্রে ঠিক মতো প্রয়োগ করা যায় না— তা নিয়েই আগামী কয়েক মাস কাজ করতে চান তিনি।

ইউপিএ জমানায় দেশের মুখ্য আর্থিক উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করার অভিজ্ঞতা বিশ্বব্যাঙ্কে কাজে এসেছে বলে উল্লেখ করেন কৌশিকবাবু। বিশেষ করে আমলাতন্ত্রের বেড়াজাল কাটিয়ে কাজ এগিয়ে নিয়ে যেতে সরকারের সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতা সাহায্য করেছে বলে তাঁর দাবি। সে ক্ষেত্রে এই অর্থনীতিবিদের পরামর্শ, কথা কম বলে, বরং সরাসরি কাজে করে দেখাতে পারলে অনেক কিছু অর্জন করা সম্ভব।