Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৯ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

করোনার আবহেই বাড়ছে স্বাস্থ্য বিমার প্রিমিয়াম

১৫ মে থেকে ন্যাশনাল মেডিক্লেম পলিসির প্রিমিয়াম বাড়াচ্ছে এনআইসি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
১০ মে ২০২০ ০৬:৩১
Save
Something isn't right! Please refresh.
প্রতীকী চিত্র।

প্রতীকী চিত্র।

Popup Close

রুজি-রোজগারে যখন করোনার তীব্র আঘাত আছড়ে পড়ছে, ঠিক তখনই স্বাস্থ্য বিমার প্রিমিয়াম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিল রাষ্ট্রায়ত্ত সাধারণ বিমা সংস্থা ন্যাশনাল ইনশিওরেন্স কোম্পানি (এনআইসি)। শুধু বাড়ানোই নয়, কিছু ক্ষেত্রে সেই বৃদ্ধির পরিমাণ ছাড়িয়েছে ৭৮%। বিশেষত সমস্যার মুখে পড়েছেন বয়স্করা। সংস্থার যুক্তি, চিকিৎসা খরচের দাবি বাড়ায় সমস্যায় পড়ছে তারা। তাই এই পদক্ষেপ। কিন্তু সংশ্লিষ্ট মহলের প্রশ্ন, এত বোঝা সবাই বইতে পারবেন? ব্যাঙ্কে সুদ কমছে। চাকরি-বাকরির অবস্থা শোচনীয়। করোনার এই ভয়ানক আবহে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া যুক্তিযুক্ত কি? সংস্থার এজেন্টরাই প্রশ্ন তুলছেন, যাঁরা কষ্টেসৃষ্টে এত দিন প্রিমিয়াম টেনেছেন, ভবিষ্যতে পারবেন তো?

১৫ মে থেকে ন্যাশনাল মেডিক্লেম পলিসির প্রিমিয়াম বাড়াচ্ছে এনআইসি। সংস্থা সূত্রে খবর, তা বাড়ছে মোটামুটি ২০% থেকে প্রায় ৭৯%। জানা গিয়েছে, ১৫ মে থেকে পরের তিন মাসের মধ্যে যে সব গ্রাহকের পলিসি পুনর্নবীকরণের (রিনিউ) তারিখ, তাঁরা আগামী এক বছর পুরনো হারে প্রিমিয়াম দিতে পারবেন। পরের বছর থেকে নতুন হারে প্রিমিয়াম গুনতে হবে। তবে শর্ত, এখন বিমাকৃত অঙ্ক বাড়ানো যাবে না। যদি কেউ তা বাড়াতে চান, তা হলে নতুন হারে প্রিমিয়াম দিতে হবে। পুনর্নবীকরণের তারিখ ১৫ মে থেকে তিন মাস পরে হলে কিংবা যাঁরা নতুন পলিসি কিনবেন, তাঁদের অবশ্য নতুন হারেই প্রিমিয়াম দিতে হবে।

নতুন হার অনুযায়ী, ৬৫ বছরের বিমাকারী ৪ লক্ষ টাকার পলিসি কিনলে প্রিমিয়াম বছরে ২৮,৩৮৪ টাকা। যা ছিল ১৫,৮৯৪ টাকা। অর্থাৎ একলপ্তে ১২,৪৯০ টাকা (৭৮.৫০%) বেশি। ৫৬ বছর বয়সির ৪ লক্ষের পলিসির জন্য প্রিমিয়াম বেড়েছে ৫৯১৫ টাকা। আগের থেকে প্রায় ৩৯% বেশি। তবে কম বয়সিদের ক্ষেত্রে বৃদ্ধির হার তুলনায় কম। যেমন, ৩০ বছর বয়স হলে ৪ লক্ষের পলিসিতে প্রিমিয়াম বাড়ছে ৯৭০ টাকা।

Advertisement

আরও পড়ুন: এসবিআই-সহ ৬ ব্যাঙ্কের থেকে ঋণ ৪০০ কোটিরও বেশি, ‘নিখোঁজ’ মালিকদের বিরুদ্ধে

এত বেশি হারে প্রিমিয়াম বাড়ানোর তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন বিমা এজেন্টদের সংগঠনের নেতা শ্যামল চক্রবর্তী। তিনি বলেন, “প্রধানমন্ত্রী সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্য বিমায় জোর দিচ্ছেন। আর সেই সময়ে একটি রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা প্রিমিয়াম এত বাড়াচ্ছে। এই করোনাজনিত আর্থিক সঙ্কটের মধ্যেই। গ্রাহকেরা চূড়ান্ত সমস্যায় পড়বেন। প্রবীণ নাগরিকদের অনেকে পলিসি পুনর্নবীকরণ করাতে পারবেন কি না, সন্দেহ আছে।’’

আরও পড়ুন: আরও ধারের পথে কেন্দ্র, রইল দুই প্রশ্ন

এ ব্যাপারে এনআইসি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে চেষ্টা করেও যোগাযোগ করা যায়নি। তবে সংস্থা সূত্রের দাবি, খরচ সামলাতেই এই সিদ্ধান্ত। তা-ও প্রায় সাত বছর পরে। শেষ বার স্বাস্থ্য বিমার প্রিমিয়াম বাড়ানো হয়েছিল ২০১৩ সালের সেপ্টেম্বরে। ওই সূত্রের যুক্তি, পলিসিতে বাড়তি কিছু সুবিধাও যোগ হয়েছে। যেমন, আয়ুর্বেদ, হোমিওপ্যাথি, ইউনানির মতো পদ্ধতিতে চিকিৎসা করালে, তার জন্য বিমাকৃত টাকার ১০০% পর্যন্ত পাবেন গ্রাহক। আগে ২০% পর্যন্ত মিলত। আগে হাসপাতালে ভর্তির আগে ৩০ দিনের চিকিৎসার খরচ দেওয়া হত, এখন ৪৫ দিনের মিলবে। গ্রাহক যদি চিকিৎসার আংশিক খরচ দিতে রাজি হন, তা হলে প্রিমিয়ামের হারে ১৫% পর্যন্ত ছাড়ও দেওয়া হবে।

(অভূতপূর্ব পরিস্থিতি। স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিয়ো আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, feedback@abpdigital.in ঠিকানায়। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।)



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement