• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

অ্যামাজ়নের লগ্নি নিয়ে তোপ গয়ালের

Piyush Goyal
বাণিজ্যমন্ত্রী পীযূষ গয়াল।

Advertisement

ভারতে আগামী পাঁচ বছরে আরও ১০০ কোটি ডলার (প্রায় ৭১ হাজার কোটি টাকা) ঢালার কথা বুধবারই ঘোষণা করেছেন অ্যামাজ়নের কর্ণধার জেফ বেজোস। কিন্তু তার চব্বিশ ঘণ্টা না-কাটতেই বাণিজ্যমন্ত্রী পীযূষ গয়াল বললেন, তা করে আদৌ এ দেশকে কৃতার্থ করছে না মার্কিন ই-কমার্স বহুজাতিকটি! বরং পণ্য বিক্রির সময়ে দামে ছাড় দিতে গিয়ে ফি বছর তারা যে বিপুল ক্ষতির মুখ দেখে, আসলে তা পুষিয়ে দিতেই এই লগ্নি। একই সঙ্গে ইঙ্গিত দিলেন ঘুরপথে এ দেশে বহু ব্র্যান্ডের খুচরো ব্যবসায় পা রাখতে অ্যামাজ়নের মতো ই-কমার্স সংস্থা বিদেশি লগ্নির নিয়ম ভাঙছে কি না, তা খতিয়ে দেখারও।

ইট-কাঠ-পাথরের দোকান চালানো ব্যবসায়ীদের বড় অংশের অভিযোগ, অ্যামাজ়ন যে ভাবে বাজার ধরতে নিয়মের তোয়াক্কা না-করে বিপুল ছাড় দেয়, তাতে তাঁদের ব্যবসা লাটে ওঠার জোগাড়। এঁদের দাবি, বিদেশি লগ্নির বিধি মাফিক এ দেশে অ্যামাজন শুধু নেট-বাজার। ফলে পণ্যে বিপুল ছাড় দিয়ে বাজার দখলের চেষ্টা নিয়ম ভাঙা। এ নিয়ে অ্যামাজ়ন, ফ্লিপকার্টের মতো সংস্থাগুলিতে তদন্তও শুরু করেছে প্রতিযোগিতা কমিশন। এ দিন এ বিষয়ে প্রশ্ন তুলেছেন খোদ মন্ত্রীও।

অবশ্য পীযূষের এই মন্তব্য বিদেশি লগ্নিকারীদের কাছে কী বার্তা দেবে, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন অনেকে। আশঙ্কা, একে দেশে লগ্নি বাড়ন্ত। তার উপরে খোদ মন্ত্রীর এ হেন মন্তব্য বিদেশি লগ্নি টানার ক্ষেত্রে ব্যুমেরাং হবে না তো? অনেকে বলছেন, হালে যে প্রস্তাবিত মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি থেকে ভারত সরে এসেছে, আগে তার পক্ষে কথা বলায় স্বদেশি জাগরণ মঞ্চের চক্ষুশূল হন পীযূষ। এ বার কি তাই ক্ষুব্ধ ব্যবসায়ীদের ক্ষোভে মলম দিতেই এই সমালোচনা? তাঁদের বড় অংশ যেহেতু বিজেপির বিশ্বস্ত ভোট-ব্যাঙ্ক।

বিধি মেনে শুধু নেট-বাজার হলে, অ্যামাজনের এত ক্ষতি হয় কী ভাবে?— মন্ত্রী যখন এই প্রশ্ন তুলছেন, তখন নেট দুনিয়ায় কটাক্ষের (ট্রোল) শিকার বেজোস। মোহনদাস কর্মচন্দ গাঁধীর স্মৃতিস্থলে শ্রদ্ধা জানানোর ভিডিয়ো পোস্ট দেখে জুটছে কটাক্ষ, গাঁধী চাইতেন ছোট শিল্প ও ব্যবসায়ীর উন্নতি। যাঁদের অনেকে রুজি হারাচ্ছেন অ্যামাজ়নের মতো সংস্থার কারণেই। 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন