Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৩ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

দ্বিতীয় পাসওয়ার্ড বাধ্যতামূলক • লেনদেন ভারতীয় ব্যাঙ্ক মারফত

ক্রেডিট কার্ডে অনলাইন কেনাকাটায় নিরাপত্তা জোরদার করছে আরবিআই

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই ২৪ অগস্ট ২০১৪ ০১:০৯

অনলাইনে ভারতীয় ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে কেনাকাটার ক্ষেত্রে দ্বিতীয় ধাপে ‘পাসওয়ার্ড’ দেওয়ার পদ্ধতি বাধ্যতামূলক করল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। একই সঙ্গে তারা জানিয়ে দিল, এ বার থেকে ওই ধরনের লেনদেনে বিল মেটাতে হবে এ দেশেরই কোনও ব্যাঙ্কের মাধ্যমে। এবং তা দিতে হবে টাকায়। ডলার বা অন্য কোনও বিদেশি মুদ্রার মাধ্যমে দাম মেটালে চলবে না।

রিজার্ভ ব্যাঙ্কের এই নির্দেশ মূলত সেই সমস্ত লেনদেনের জন্য, যেখানে ক্রেডিট কার্ড ঘষার (সোয়াইপ করা) প্রয়োজন হয় না। তার পরিবর্তে কার্ডের তথ্য (কার্ডের নম্বর, তার পিছনে লেখা সিভিভি নম্বর ইত্যাদি) কম্পিউটার বা মোবাইলের বোতাম টিপে কিংবা মুখে বলে দিতে হয় ক্রেতাকে।

ওই সমস্ত ক্ষেত্রে প্রথম ধাপে সিভিভি নম্বর তো দিতে হয়ই, দ্বিতীয় ধাপে দিতে হয় পাসওয়ার্ডও। অনেকে নিজের নির্দিষ্ট পাসওয়ার্ড ব্যবহার করেন। অনেকে আবার প্রত্যেক লেনদেনের জন্য ব্যবহার করেন নতুন পাসওয়ার্ড। শীর্ষ ব্যাঙ্ক জানিয়েছে, সম্প্রতি তাদের নজরে এসেছে এমন কিছু সংস্থা, যারা দ্বিতীয় দফায় ওই পাসওয়ার্ড আর চায় না। শুধু ক্রেডিট কার্ডের তথ্যের ভিত্তিতেই পণ্য বা পরিষেবার দাম নিয়ে নেয় সরাসরি। অবিলম্বে তা বন্ধ করে দ্বিতীয় দফার পাসওয়ার্ড চাওয়ার ব্যবস্থা চালু করতে এই ধরনের সমস্ত সংস্থাকে ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত সময় দিয়েছে তারা।

Advertisement

সম্প্রতি এ দেশের বাজারে পা রেখেছে মার্কিন গাড়ি-ভাড়া পরিষেবা সংস্থা উবের টেকনোলজিস। সান ফ্রান্সিসকো ভিত্তিক ওই সংস্থাটি পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে গাড়ি-ভাড়ার পরিষেবা দেয়। তাদের নির্দিষ্ট অ্যাপ (অ্যাপ্লিকেশন) মোবাইলে ডাউনলোড করার পরে ভাড়ার জন্য গাড়ি বুক করা যায় সেখান থেকেই। ক্রেডিট কার্ড মারফত মিটিয়ে দেওয়া যায় বিলের টাকা। ফলে গন্তব্যে পৌঁছে ভাড়া মেটানোর বাধ্যবাধকতা থাকে না। কিন্তু এই উবেরের বিরুদ্ধে তার ভারতীয় প্রতিদ্বন্দ্বীদের (মেরু ক্যাব, মেগা ক্যাব ইত্যাদি) অভিযোগ, বুকিংয়ের সময়ে মার্কিন গাড়ি-ভাড়া পরিষেবা সংস্থাটি দ্বিতীয় দফায় পাসওয়ার্ড আর চায় না। ফলে এ ক্ষেত্রে অনৈতিক ভাবে সুবিধা পাচ্ছে তারা। অনেক বেশি ঝুঁকি বইতে হচ্ছে কার্ড-ব্যবহারকারীকেও। সংশ্লিষ্ট মহলের দাবি, বিষয়টি নিয়ে তারা রিজার্ভ ব্যাঙ্কের দ্বারস্থ হওয়ার পরেই এই নির্দেশিকা জারি করেছে শীর্ষ ব্যাঙ্ক।

সংশ্লিষ্ট মহলের অনেকেই মনে করছেন, এই নয়া নির্দেশ মানতে গিয়ে পণ্য বা পরিষেবার দাম নেওয়ার পদ্ধতি (বিলিং সিস্টেম) পাল্টাতে হবে উবের-সহ অনেক বিদেশি সংস্থাকে। কারণ, মূলত তারাই দ্বিতীয় বার পাসওয়ার্ড চাওয়ার ওই পদ্ধতি এত দিন এড়িয়ে যেত। ওই সমস্ত সংস্থার পেমেন্ট গেটওয়েও (যে-পথে ক্রেতার ক্রেডিট কার্ড থেকে টাকা বিক্রেতার হাতে পৌঁছয়) অনেক ক্ষেত্রে বিদেশি। কিন্তু এ বার দ্বিতীয় দফার পাসওয়ার্ড চাওয়ার উপযুক্ত পরিকাঠামো তৈরি করতেই হবে তাদের। টাকাও নিতে হবে ভারতীয় মুদ্রায় (টাকা), এ দেশেরই কোনও ব্যাঙ্কের মাধ্যমে।

পিপিএফে বাড়তি জমা নিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি। পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড (পিপিএফ)-এ এখন থেকে একটি অর্থবর্ষে সর্বোচ্চ দেড় লক্ষ টাকা জমা দেওয়ার ব্যাপারে বিজ্ঞপ্তি জারি করল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। কেন্দ্রীয় বাজেটে অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির ঘোষণা অনুযায়ী কোনও ব্যক্তি অর্থবর্ষে তাঁর পিপিএফ অ্যাকাউন্টে সর্বোচ্চ দেড় লক্ষ টাকা জমা দিতে পারবেন। এত দিন তা ছিল ১ লক্ষ টাকা। তা নিয়েই বিজ্ঞপ্তি জারি করে বিভিন্ন বাণিজ্যিক ব্যাঙ্ককে পাঠিয়ে দিয়েছে আরবিআই। ১৯৬৮ সালের পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড প্রকল্পের আওতায় এই রদবদল করা হয়েছে বলে শীর্ষ ব্যাঙ্ক জানিয়েছে। বিভিন্ন ব্যাঙ্কের যে-সব শাখায় পিপিএফ অ্যাকাউন্ট খোলা যায়, তাদেরও এই বিজ্ঞপ্তি পাঠাতে ও গ্রাহকদের নতুন নিয়ম জানিয়ে দিতে নির্দেশ দিয়েছে আরবিআই। প্রসঙ্গত, ২০১৪-’১৫ আর্থিক বছরের জন্য পিপিএফে সুদের হার ৮.৭%। সঞ্চয় বাড়াতেই জেটলি এই প্রকল্পে লগ্নির সীমা বাড়িয়ে দিয়েছেন।

আরও পড়ুন

Advertisement