বিভিন্ন পরিষেবার খরচের তালিকা ঢেলে সাজাল স্টেট ব্যাঙ্ক। এর মধ্যে যেমন এক দিকে নেটে পরিষেবায় উৎসাহ দিতে কমানো হয়েছে চার্জ, তেমনই আবার বাড়ি গিয়ে (ডোর স্টেপ) পরিষেবা দিতে কত টাকা লাগবে, তা-ও ঘোষণা করা হয়েছে। মঙ্গলবার থেকেই নতুন হার চালু হয়েছে। এ দিন থেকে রেপো রেটের উপরে ভিত্তি করে ঋণে সুদ স্থির করার নতুন পদ্ধতিও চালু করেছে ব্যাঙ্কটি।

স্টেট ব্যাঙ্কের এক কর্তা জানান, সার্বিক ভাবে নেট পরিষেবার চার্জ প্রায় ৫০% কমিয়েছেন তাঁরা। যেমন, নেট, অ্যাপের মাধ্যমে নেফ্‌ট ও আরটিজিএসের ক্ষেত্রে চার্জ পুরোপুরি তোলা হয়েছে। ওই সব লেনদেন শাখায় গিয়ে করলে আগে যা চার্জ লাগত, এখন তার থেকে কম লাগবে। একই ভাবে নেটে আইএমপিএস লেনদেনের চার্জ পুরো তোলা হয়েছে। তবে শাখায় গিয়ে এই লেনদেনে আগের চেয়ে বেশি টাকা লাগবে।

এসএমএসে ব্যাঙ্কিং পরিষেবার খবর দেওয়ার পরিষেবা পেতেও এখন আগের থেকে কম টাকা দিতে হবে। তবে অন্য দিকে আয় বাড়াতে নতুন চেক বই পাওয়া-সহ আরও কিছু ক্ষেত্রে বাড়ানো হয়েছে চার্জের অঙ্ক। বদলানো হয়েছে ব্যাঙ্কের শাখায় টাকা তোলার খরচ। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, এটিএম পরিষেবার ক্ষেত্রে চার্জ বা তা ব্যবহারের সংখ্যার ক্ষেত্রে তেমন বড় হেরফের করা হয়নি। কিছু ক্ষেত্রে তালিকা ঢেলে সাজা হয়েছে।

নির্দিষ্ট কিছু শাখা থেকে প্রবীণ নাগরিক ও অসুস্থ গ্রাহকদের জন্য বাড়ি গিয়ে পরিষেবা চালু করেছে স্টেট ব্যাঙ্ক। কর্তৃপক্ষের দাবি, আর্থিক লেনদেন হলে চার্জ লাগবে ১০০ টাকা করে। বাকি ক্ষেত্রে ৬০ টাকা।