Advertisement
০৫ মার্চ ২০২৪
SBI

SBI: ২ থেকে বাড়িয়ে ৫ লাখ, বিনাখরচে সুবিধা এক লাফে অনেকটা বাড়াল স্টেট ব্যাঙ্ক

সম্প্রতি টুইট করে এই বিষয়ে বিস্তারিত জানিয়েছে ভারতের বৃহত্তম ব্যাঙ্ক স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া। আগামী ১ ফেব্রুয়ারি থেকে গ্রাহকরা এই সুবিধা পাবেন।

প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৭ জানুয়ারি ২০২২ ১৮:৫৬
Share: Save:

ইমিডিয়েট পেমেন্ট সার্ভিস (আইএমপিএস) ব্যবস্থায় এতদিন একজন গ্রাহক অনলাইনে দু'লাখ টাকা পর্যন্ত অন্য অ্যাকাউন্টে পাঠাতে পারেন। এ বার সেই টাকার পরিমাণ বড়ে এক লাফে পাঁট লাখ টাকা হয়ে যাচ্ছে। সম্প্রতি টুইট করে এই বিষয়ে বিস্তারিত জানিয়েছে ভারতের বৃহত্তম ব্যাঙ্ক স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া। আগামী ১ ফেব্রুয়ারি থেকে গ্রাহকরা এই সুবিধা পাবেন।
সম্প্রতি দেশে অনলাইন ব্যাঙ্ক পরিষেবার প্রতি সাধারণ আগ্রহ বেড়েই চলেছে। সাধারণ জীবনেও তার প্রতিফলন দেখা যাচ্ছে। ছোট অঙ্কের লেনদেন যেমন বেড়েছে তেমন বড় অঙ্কের টাকা পাঠানোও বেড়েছে। কিন্তু এতদিন আইএমপিএস পদ্ধতিতে সর্বোচ্চ দু'লাখ টাকা পাঠানো যেত। তাতে অনেক গ্রাহকই সমস্যায় পড়তেন। নতুন বছরে সেই গ্রাহকদের নতুন উপহার দিল স্টেট ব্যাঙ্ক। এখন থেকে দু'লাখ টাকার বেশি অন্য অ্যাকাউন্টে পাঠাতে আর তিনদিন অপেক্ষা করতে হবে না। এ‌কদিনেই পাঁচ লাখ টাকা পর্যন্ত লেনদেন করা যাবে।

স্টেট ব্যাঙ্কের পক্ষে জানানো হয়েছে এই পরিষেবার জন্য গ্রাহকের কোনও খরচই হবে না। দিনে পাঁচ লাখ টাকা পর্যন্ত সঙ্গে সঙ্গে অন্য অ্যাকাউন্টে আইএমপিএস পদ্ধতিতে কোনও খরচই হবে না। তবে এটা শুধুই অনলাইন পরিষেবায়। গ্রাহকরা ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিং, মোবাইল ব্যাঙ্কিংয়ের পাশাপাশি ইয়োনো অ্যাপের মাধ্যমেও বিনাখরচে পাঁচ লাখ টাকা পর্যন্ত পাঠাতে পারবেন। তবে ব্যাঙ্কের কোনও শাখায় গিয়ে টাকা পাঠাতে গেলে গ্রাহকদের অতিরিক্ত খরচ থাকছে। এক হাজার টাকা পর্যন্ত বিনাখরচে পাঠানো ‌যাবে। এর উপরে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত খরচ হিসেবে ২ শতাংশ জিএসটি দিতে হবে। এর উপরে ১ লাখ টাকা পর্যন্ত ৪ শতাংশ এবং ২ লাখ টাকা পর্যন্ত ১২ শতাংশ জিএসটি দিতে হবে। আর দু'লাখের বেশি থেকে পাঁচ লাখ টাকা পর্যন্ত খরচ প্রতিবার ২০ টাকা। সেই সঙ্গে ১২ শতাংশ জিএসটি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE