Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

চিনি, সার শিল্পে উৎসাহ দেওয়ার কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তে উঠল সেনসেক্স

চিনিকলগুলির জন্য বিনা সুদে ৬০০০ কোটি টাকার ঋণ মঞ্জুর করার বিষয়ে বুধবার সায় দিল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার অর্থনীতি বিষয়ক কমিটি। এ দিন সারের সরবরা

নিজস্ব প্রতিবেদন
১১ জুন ২০১৫ ০২:৩৪

চিনিকলগুলির জন্য বিনা সুদে ৬০০০ কোটি টাকার ঋণ মঞ্জুর করার বিষয়ে বুধবার সায় দিল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার অর্থনীতি বিষয়ক কমিটি। এ দিন সারের সরবরাহ বজায় রাখার জন্যও ব্যবস্থা নিয়েছে তারা।

এই দুই সিদ্ধান্তের হাত ধরে বুধবার চিনিকল ও সার সংস্থার শেয়ার দর এক ধাক্কায় বেড়েছে ১৩% করে, যা টানা ছ’দিন পড়ার পরে শেয়ার সূচককে টেনে তোলার জন্য অনেকটাই দায়ী। এ দিন সেনসেক্স বেড়েছে ৩৫৯.২৫ পয়েন্ট। বাজার বন্ধের সময়ে সূচক দাঁড়ায় ২৬৮৪০.৫০ অঙ্কে। এর আগে টানা ছ’দিনে সেনসেক্স পড়েছে ১৩৬৭ পয়েন্ট।

চিনিকলগুলিকে বিনা সুদে ঋণ মঞ্জুরের সিদ্ধান্তের জেরে শক্তি সুগারের শেয়ারের দাম বেড়েছে ১২.৬৬%, বজাজ হিন্দুস্তান সুগারের ১০.০৫% এবং রেণুকা সুগার ৭.৬১%।

Advertisement

দীর্ঘ দিন ধরেই চিনি শিল্প আর্থিক সমস্যায় ভুগছে। আখ কেনার পরে চাষিদের দাম মেটাতে পারেননি মিল মালিকেরা। চাষিদের কাছে তাঁদের মোট বকেয়া ২১ হাজার কোটি টাকা। কেন্দ্র যে-ঋণ মঞ্জুর করেছে, তার পুরোটাই আখের দাম মেটাতে ব্যবহার করা হবে। বিষয়টি নিশ্চিত করতে কেন্দ্র সিদ্ধান্ত নিয়েছে, ওই টাকা ব্যাঙ্কে চাষিদের ‘জন-ধন’ অ্যাকাউন্টে সরাসরি জমা করে দেবে ব্যাঙ্ক। চাষিদের তালিকা তৈরি করে দেবেন চিনিকল মালিকরাই। প্রসঙ্গত, এর আগে এপ্রিলে চিনির আমদানি শুল্ক ২৫% থেকে বাড়িয়ে ৪০% করে কেন্দ্র। চিনি আমদানি ঠেকিয়ে দেশীয় শিল্পের বাজার বাড়লে চিনিকলগুলি যাতে চাষিদের প্রাপ্য মেটাতে পারে, তার জন্যই শুল্ক বাড়ানো হয়েছিল।

অন্য দিকে, ন্যাপথা ব্যবহার করে ইউরিয়া তৈরি হয়, দক্ষিণ ভারতের এমন তিনটি কারখানায় উৎপাদন আপাতত চালিয়ে যাওয়ার অনুমতি মেলায় বিশেষ করে কর্নাটক, তামিল নাড়ু এবং কেরলে সারের জোগান অব্যাহত থাকবে। গ্যাস ভিত্তিক কারখানায় উৎপাদন খরচ কম বলে ন্যাপথাকে কাঁচামাল হিসেবে ব্যবহার করা ৩ কারখানায় আগে উৎপাদন বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল কেন্দ্র।

তবে মূলত পড়তি বাজারে শেয়ার কেনার জেরেই এ দিন সূচক উঠেছে বলে বাজার সূত্রের খবর। মরগান স্ট্যানলি ক্যাপিটাল ইন্টারন্যাশনাল সূচকে চিনের শেয়ার অন্তর্ভুক্ত না-হওয়ায় তার ইতিবাচক প্রভাবও বাজারে পড়েছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, চিনা সংস্থার শেয়ার ওই সূচকে ঢোকানো হলে তার বিরূপ প্রভাব পড়ত অন্য শেয়ারের উপর।

আরও পড়ুন

Advertisement