চলতি বছরেই এয়ার ইন্ডিয়া বিক্রি করে দিতে চাইছে কেন্দ্রীয় সরকার। তার জন্য পরের মাসে নতুন করে দরপত্র চাওয়া হবে। এবং সেখানে বেশ কিছু নতুন বিষয় যোগ হচ্ছে। হস্তান্তর প্রক্রিয়া চলাকালীনই সম্ভাব্য ক্রেতারা চুক্তিপত্রে পরিবর্তনের প্রস্তাব দিতে পারেন। সরকার সেগুলি বিবেচনা করে দেখতে পারে। সরকার তাদের হাতে থাকা এয়ার ইন্ডিয়ার সব শেয়ারই বিক্রি করে দেবে।

গতবছর এয়ার ইন্ডিয়া বিক্রির চেষ্টা হয়। কিন্তু সেটি সফল না হওয়ায় নতুন করে চিন্তা ভাবনা শুরু হয়েছে। এমনকি সরকার একটি রোড শো করার পরিকল্পনা করেছে। সেই সঙ্গে দরপত্রে পরিবর্তনের মতো প্রস্তাবও রয়েছে। বাজেট ভাষণে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন জানিয়ে ছিলেন, এয়ার ইন্ডিয়া বিলগ্নিকরণের মাধ্যমে সরকারের হাতে ১ লক্ষ ৫ হাজার কোটি আসতে পারে।

বেশ কয়েক বছর ধরেই প্রতিযোগিতায় পিছিয়ে পড়ছে এয়ার ইন্ডিয়া। বিভিন্ন বেসরকারি উড়ান সংস্থাগুলি খুব কম দামে পরিষেবা দিচ্ছে। সেই জায়গায় বাজার ধরে রাখতে পারছে না এয়ার ইন্ডিয়া। ইতিমধ্যেই মোট ৫৭ হাজার ৭২৯ কোটি টাকা ক্ষতিতে চলছে। এয়ার ইন্ডিয়ার ঘুরে দাঁড়ানোর জন্য সরকার আর্থিক সাহায্য করলেও বিশেষ কোনও লাভ হয়নি।

আরও পড়ুন : ফাইনালে কেউ হারেনি, বলছেন 'দার্শনিক' কেন উইলিয়ামসন

আরও পড়ুন : জেমস বন্ডের পরবর্তী ছবিতে ০০৭-এর ভূমিকায় এক কৃষ্ণাঙ্গ মহিলা!