• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ঋণ খেলাপি অনিল অম্বানীর দফতর অধিগ্রহণ ইয়েস ব্যাঙ্কের

Yes Bank takes over Anil Ambani’s Group HQ
ঋণ খেলাপের দায়ে দফতর হাতছাড়া অনিল অম্বানীর— ফাইল চিত্র।

অনিল অম্বানীর মালিকানাধীন একটি কোম্পানির মুম্বইয়ের সদর দফতরের দখল নিল ইয়েস ব্যাঙ্ক। ২,৯৯২ কোটি ৪৪ লক্ষ টাকা ঋণ নিয়ে পরিশোধ না করার কারণেই এই পদক্ষেপ বলে ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ সংবাদপত্রে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে জানিয়েছেন। অনিলের সংস্থা ‘রিলায়্যান্স অনিল ধীরুভাই অম্বানী গ্রুপ’ (এডিএজি) পরিচালিত রিলায়্যান্স ইনফ্রাস্ট্রাকচারের সদর দফতরটি দক্ষিণ মুম্বইয়ের সান্তাক্রুজ এলাকার রিলায়্যান্স সেন্টারে। আয়তন প্রায় ২১,৪৩২ বর্গমিটার।

সদর দফতরের পাশাপাশি আইন মেনে গত ২২ জুলাই রিলায়্যান্স ইনফ্রাস্ট্রাকচারের দক্ষিণ মুম্বইয়ের নাগিন এলাকার দু’টি ফ্ল্যাটেরও দখল নেওয়া হয়েছে বলে ইয়েস ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষের তরফে প্রচারিত বিজ্ঞপ্তি জানাচ্ছে। তাতে বলা হয়েছে, ফ্ল্যাট দু’টির আয়তন ১,৭১৭ এবং ৪,৯৩৬ বর্গফুট। ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষের দাবি, ঋণ পরিশোধের শর্ত মেনেই রিলায়্যান্স ইনফ্রাস্ট্রাকচারকে মে মাসে নোটিস পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু দু’মাসের মধ্যে ঋণ শোধের শর্তের খেলাপ করায় সংস্থার তিনটি সম্পত্তির দখল নেওয়া হয়েছে।

কয়েক মাস আগেই ইয়েস ব্যাঙ্কের আর্থিক তছরুপের তদন্তে অনিলের নাম উঠে এসেছিল। এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) সূত্রে জানা যায়, ইয়েস ব্যাঙ্ক অনিলের বিভিন্ন কোম্পানিকে প্রায় ১২,৮০০ কোটি টাকা ঋণ দিয়েছিল। তা সুদে-আসলে বেড়ে ১৪ হাজার কোটি টাকায় পৌঁছেছে। ইয়েস ব্যাঙ্কের প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রাক্তন সিইও রানা কপূর নিয়ম বহির্ভূত ভাবে অনিলের ডুবতে বসা কয়েকটি কোম্পানিকে ঋণ পাইয়ে দিয়েছিলেন বলেও অভিযোগ ওঠে।

সিবিআই ঘটনার তদন্ত শুরু করার পরেই অনিল অম্বানীর সংস্থা বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছিল, রানা বা তাঁর পরিবারের সদস্যদের কোনও সংস্থার সঙ্গে তাদের কোনও লেনদেন নেই। ইয়েস ব্যাঙ্কের থেকে যে ঋণ নেওয়া হয়েছে, তার বিনিময়ে শর্ত মেনে সম্পত্তি বন্ধক রাখা হয়েছে। ইয়েস ব্যাঙ্ক কাণ্ডের তদন্তে মার্চ মাসে ইডি প্রায় ন’ঘণ্টা জেরাও করেছিল অনিলকে। গত ২৩ জুন অনিল দাবি করেছিলেন, চলতি আর্থিক বছরেই পুরোপুরি ঋণমুক্ত হবে রিলায়্যান্স ইনফ্রাস্ট্রাকচার। 

আরও পড়ুন: ‘অভিভাবককে হারালাম’, সোমেনের স্মৃতিচারণায় কেঁদে ফেললেন অধীর

বিভিন্ন বাণিজ্যিক সংস্থাকে দেওয়া অনাদায়ী ঋণের কারণে বিপর্যয়ের মুখে দাঁড়ানো ইয়েস ব্যাঙ্কের পুনরুজ্জবীনের জন্য হস্তক্ষেপ করতে হয় কেন্দ্রকে। মার্চে সংস্থার পুরনো পদাধিকারিদের সরিয়ে নতুন সিইও এবং পরিচালন সমিতি বহাল করা হয়।

আরও পড়ুন: মণিপুরে নিরাপত্তারক্ষীদের উপর জঙ্গি হামলা, নিহত তিন জওয়ান​

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন