শহরের বুকে পোষ্যরাও এ বার সুযোগ পাবে বাগানে ঘোরার। শুধুমাত্র কুকুরের জন্য আগামী মাসে বেলগাছিয়ায় প্রাণী ও মৎস্যবিজ্ঞান বিশ্ববিদ্যালয়ে ওই পার্ক চালু হতে চলেছে।

পার্কটির নামকরণ করা হয়েছে ‘অ্যাজিলিটি ট্রেনিং পার্ক’। ‘অ্যাজিলিটি’ অর্থে তৎপরতা। পোষ্য সারমেয়কে তৎপর করার প্রশিক্ষণ দিতে এ-হেন উদ্যান পূর্ব ভারতে এই প্রথম বলে দাবি করেছেন প্রাণী ও মৎস্যবিজ্ঞান বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য পূর্ণেন্দু বিশ্বাস। পূর্ণেন্দুবাবু বলেন, ‘‘শহরে পোষ্যের সংখ্যা বেড়েছে। পোষ্যদের কথা মাথায় রেখে এই উদ্যান তৈরি হচ্ছে। বিএসএফের ডগ স্কোয়াডের অবসরপ্রাপ্ত দুই জওয়ান কুকুরদের প্রশিক্ষণ দেবেন।’’

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রের খবর, ওই পার্কে কুকুরের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা ছাড়াও থাকছে গ্যালারি, ব্যায়ামের যন্ত্রপাতি, নির্দিষ্ট স্থানে শৌচাগারের ব্যবস্থা, বড় ও ছোট কুকুরের থাকার জন্য আলাদা ব্যবস্থা। কর্তৃপক্ষ জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের বেলগাছিয়ার ক্যাম্পাসের ভিতরেই প্রায় দশ কাঠা জমির উপরে ওই উদ্যান নির্মাণে খরচ হয়েছে প্রায় পনেরো লক্ষ টাকা।

সাধারণ উদ্যানে পোষ্য নিয়ে ঢুকতে অনেক বিধিনিষেধ থাকে। স্রেফ পোষ্যদের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের এ-হেন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন পোষ্যপ্রেমীরা। প্রাণীবিকাশ বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান তথা পোষ্যদের নিয়ে কাজ করা একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার কর্ণধার এবং বিধায়ক দেবশ্রী রায় বলেন, ‘‘সাধারণ উদ্যানে পোষ্যদের নিয়ে গেলে অনেক সময়ে মানুষ আপত্তি করেন। সম্প্রতি রবীন্দ্র সরোবরে এক পোষ্যপ্রেমী তাঁর পোষ্যকে নিয়ে যাওয়ায় এক জন লাঠিপেটা করেছিলেন। এ নিয়ে চরম বিতর্ক দেখা দিয়েছিল।’’ দেবশ্রীর কথায়, ‘‘কেবল পোষ্যদের নিয়ে এ রকম উদ্যান হলে খুব ভাল হয়। প্রাণী ও মৎস্যবিজ্ঞান বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এই উদ্যোগ নেওয়ায় তাঁদের অনেক ধন্যবাদ জানাচ্ছি। কারণ একই ছাদের তলায় পশুদের একটি ক্লিনিক থাকায় ট্রেনিংয়ের পাশাপাশি পোষ্যদের চিকিৎসারও সুবিধা পাওয়া যাবে।’’

প্রসঙ্গত বছর খানেক আগে অন্ধ্র প্রদেশের হায়দরাবাদের কোন্ডাপুরে পোষ্যদের প্রশিক্ষণের জন্য একটি ডগ পার্কের উদ্বোধন হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন অধ্যাপক শৈবাল চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘‘পোষ্যের সঙ্গে সম্পর্ক সুখের এবং সাফল্যময় করে তোলার জন্য প্রশিক্ষণ দেওয়া জরুরি। ঠিক মতো রুটিন মেনে প্রশিক্ষণ দিলে আপনার পোষ্য অবাধ্য হবে না।’’ বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানানো হয়েছে, প্রত্যহ সকাল, বিকেল এই উদ্যান খোলা হবে।